পু’লিশ কি ক’রছে, ফে’সবুকে না ছ’ড়ালে তো ঘ’টনা গো’পনই থা’কতো: হা’ইকো’র্ট

সারাদেশঃ নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে স্বা’মীকে বেঁ’ধে রেখে গৃ’হব’ধূকে বি’বস্ত্র করে নি’র্যাতনের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম থেকে সরিয়ে নিতে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকো’র্ট। সোমবার (৫ অক্টোবর) সকালে, বি’চারপতি মজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি মহিউদ্দিন শামীমের হাইকো’র্ট বে’ঞ্চ এই নির্দেশ দেন। পরে, দুপুরে এ বি’ষয়ে আদেশ দেয়া হবে। এ সময় হাইকো’র্ট প্রশ্ন করেন, ‘এক মাস এই ঘটনা চা’পা থাকলো কি করে, পুলিশ কি করছে। ফেসবুকে না ছ’ড়ালে তো ঘটনা গো’পনই থাকতো।’

এদিকে, প্রধান আ’সামি বাদলকে ঢাকা এবং দেলোয়ারকে না’রায়ণগঞ্জ থেকে গ্রে’প্তার করেছে র‌্যা’ব। রবিবার (৪ অক্টোবর) রাতে তাদেরকে গ্রে’প্তার করা হয়। এর আগে, রবিবার নোয়াখালী থেকে আরো দুই আ’সামি জয়কৃ’ষ্ণপুর গ্রামের আবদুর রহিম ও র’হমতউল্লাহকে গ্রে’প্তার করে পুলিশ। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত এ মা’মলার চারজনকে গ্রে’প্তার করা হলো।

মা’মলার এ’জাহারে বলা হয়, গত ২ সেপ্টেম্বর স্বা’মীকে পা’শের ঘরে বেঁ’ধে রেখে ওই না’রীকে নি’র্যাতন করে স্থা’নীয় ব’খাটে বা’দল, দে’লোয়ার, কা’লাম ও তার সহ’যোগীরা। বা’ধা দিলে গৃ’হব’ধূকে বি’বস্ত্র করে বে’ধড়ক মা’রধ’র করে মোবাইলে ভি’ডিও চিত্র ধারণ করে। ঘটনার পর থেকে নি’র্যাতিতা গৃ’হব’ধূর পুরো প’রিবারকে বাড়ি ছা’ড়তে বা’ধ্য করে অ’ভিযুক্তরা। ঘটনার ৩২ দিন পর গৃ’হব’ধূকে নি’র্যাতনের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফে’সবুকে প্র’কাশ পেলে তা ভা’ইরাল হয়। এতে ট’নক ন’ড়ে স্থা’নীয় প্র’শাসনের। পরে, বাড়ি ছা’ড়া গৃ’হব’ধূকে তার এক আ’ত্মীয়ের বাসা থেকে উ’দ্ধার করে পুলিশ। ঘটনার প্রায় এক মাস পর র’বিবার রাতে মা’মলা করেন নি’র্যাতনের শি’কার গৃ’হব’ধূ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *