অবশেষে জানা গেল কত দিন বেঁচে থাকে করোনাভাইরাস

মহামা’রি করো’না ভাই’রাসে থমকে গেছে পুরো পৃথিবী। স্বাস্থ্য বিজ্ঞানীরা প্রতিনিয়ত গবেষণা করছেন কী’ভাবে একে থামানো যায়। এছাড়া ভাই’রাসটি ঠিক কতক্ষণ বাঁচে এটি নিয়েও গবেষণা করেছেন তারা।

বিজ্ঞানীরা বলছেন, কভিড-১৯ এর জন্যে দায়ী ভাই’রাসটি কতক্ষণ বেঁচে থাকতে পারে তা নির্ভর করে এটি কোন ধরনের বস্তুর গায়ে পড়েছে তার ওপর। দরজার শক্ত হাতল, লিফটের বাটন এবং কিচেন ওয়ার্কটপের মতো শক্ত জিনিসের গায়ে প্রায় ৪৮ ঘণ্টা টিকে থাকতে পারে। তবে এর আগের গবেষণায় দেখা গেছে সহায়ক পরিবেশে সব ধরনের করো’নাভাই’রাস এক সপ্তাহও বেঁচে থাকতে পারে।

তবে কাপড়ের মতো নরম জিনিসের গায়ে এটি এতো লম্বা সময় বেঁচে থাকতে পারে না। ফলে আপনি যে কাপড়টি পরেছেন এবং তাতে যদি ওই ভাই’রাসটি থাকে, জামাটি একদিন কিংবা দুদিন না পরলে সেখানে ভাই’রাসটি জীবিত থাকার আর সম্ভাবনা নেই। আর যদি না ধুয়ে ফেলেন তবে মোটামুটি কাপড় চোপড়ে দুই দিন বাঁচে এই ভাই’রাসটি।

মনে রাখতে হবে, কভিড-১৯ এর ভাই’রাসটি লেগে আছে এরকম জিনিসে শুধু স্প’র্শ করলেই আপনি আ’ক্রান্ত হবেন না। স্প’র্শ করার পর আপনি যদি হাত দিয়ে মুখ, নাক অথবা চোখ স্প’র্শ করেন তাহলেই এই ভাই’রাসটি আপনার শরীরে ঢুকে পড়বে। তাই এই ভাই’রাসটি প্রতিরোধে গুরুত্বপূর্ণ একটি করণীয় হচ্ছে হাত দিয়ে মুখ স্প’র্শ না করা।

গবেষণায় দেখা গেছে, করো’নাভাই’রাসকে এক মিনিটেই নিষ্ক্রিয় করে ফেলা যেতে পারে। ৬২-৭১ শতাংশ এলকোহল মিশ্রিত তরল পদার্থ দিয়ে কোনো জিনিসকে করো’নামুক্ত করা যায়। ০.৫ শতাংশ হাইড্রোজেন প্রিঅক্সাইড এবং ০.১ শতাংশ সোডিয়াম হাইপোক্লোরাইট মেশানো ব্লিচ দিয়েও করো’নাভাই’রাস নির্মূল করা সম্ভব।

উচ্চ তাপমাত্রা ও আদ্রতার কারণেও অন্যান্য করো’নাভাই’রাসের দ্রুত মৃ’ত্যু হতে পারে। দেখা গেছে সার্সের জন্যে দায়ী করো’নাভাই’রাস ৫৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসের বেশি তাপমাত্রায় বেঁচে থাকতে পারে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *