ফেসবুকের ফেক অ্যাকাউন্ট চেনার সহজ উপায়, প্রতারণা থেকে বাঁচতে সবার জানা জরুরী

সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে এখন বর্তমান প্রজন্মের অনেকেই আসক্ত। আর এই আসক্তির অসৎ সুযোগ নিচ্ছে এক শ্রেণীর মানুষ। অনেকেই ফেসবুকে নকল প্রোফাইল খুলে নিজেদের নাম পরিচয় বদলে প্রেমের প্রতারণা, অর্থ প্রতারণা, ব্ল্যাকমেইল সহ নানান অপরাধ করছে। স্কুল কলেজ পড়ুয়া কম বয়সী ছেলে মেয়েরা অনেকেই এই ফাঁদে পা দিয়ে ফেলছেন। ফলে নিজের জীবনে অনেকেই ডেকে আনছেন বিপর্যয়।

জেনে নিন ফেসবুকের ভুয়া প্রোফাইল সনাক্ত করার কার্যকরী উপায়

মনে প্রশ্ন জাগতে পারে কীভাবে সনাক্ত করা যাবে ফেসবুকের প্রোফাইল আসল নাকি ভুয়া সেই সম্পর্কে। ফেসবুকের ভুয়া প্রোফাইল সনাক্ত করার আছে কিছু সহজ উপায়। আসুন জেনে নেয়া যাক ফেসবুকে ভুয়া প্রোফাইল সনাক্ত করার সহজ কিছু উপায় সম্পর্কে।

প্রোফাইল পিকচার
ফেসবুকের ভুয়া প্রোফাইল সনাক্ত করার একটি কার্যকরী উপায় হলো প্রোফাইল পিকচার গুলো ভালো ভাবে দেখা। অধিকাংশ ফেক প্রোফাইলের ছবিতেই খুব সুন্দরী নারী অথবা হ্যান্ডসাম পুরুষের ছবি দেয়া থাকে। তবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই সেই ছবির মান খুবই খারাপ থাকে। খুব বেশি প্রোফাইল ফটোও থাকে না এই ধরনের প্রোফাইলে। হাতে গোনা ১০/১২টা ছবির বেশি থাকে না প্রোফাইল পিকচার এ্যালবামে। এক্ষেত্রে ছবিটি গুগল ইমেজে সার্চ দিয়ে দেখতে পারেন ছবিটি আরো কোথাও পাওয়া যায় কিনা। অধিকাংশ ক্ষেত্রেই গুগল ইমেজে সার্চ দিলে দেখা যায় পাকিস্থানি কিংবা তামিল নায়ক নায়িকাদের ছবি দিয়ে প্রোফাইল পিকচার বানানো হয়েছে।

ছবির এ্যালবাম
ফেসবুকের নকল প্রোফাইলে ছবির এ্যালবাম থাকে না সাধারণত। একটি আসল প্রোফাইলে বিভিন্ন অনুষ্ঠাম, উপলক্ষ্যের ছবির এ্যালবাম থাকে যেগুলো নকল প্রোফাইলের ক্ষেত্রে থাকে না। এ্যালবাম থাকলেও নিজের ছবির বদলে ফুল, পাখি, প্রাকৃতিক দৃশ্যের ছবি দিয়ে এ্যালবাম বানিয়ে রাখে ফেক প্রোফাইলধারীরা।

বন্ধুদের সাথে কমেন্ট আদান প্রদান
আসল ফেসবুক প্রোফাইলে স্বাভাবিক ভাবেই স্ট্যাটাস ও ছবিতে বন্ধুদের সাথে প্রচুর কমেন্ট আদান প্রদান করা হয়। কিন্তু নকল ফেসবুক প্রোফাইলে এধরনের কমেন্টের আদান প্রদান ও কথোপকথন থাকে না। নকল প্রোফাইলের ছবির নিচে কিংবা স্ট্যাটাসে কমেন্ট থাকলেও তা শুধু প্রশংসা বাক্যই থাকে। অন্য কোনো ধরনের বাক্যালাপ লক্ষ্য করা যায় না নকল প্রোফাইলে।

ফ্রেন্ড লিস্ট
ফেসবুকের ভুয়া প্রোফাইল সনাক্ত করতে চাইতে ফ্রেন্ড লিস্ট দেখুন। ফ্রেন্ড লিস্টে যদি অধিকাংশ মানুষই বিপরীত লিঙ্গের হয় তাহলে বুঝে নিন সেটা ফেক প্রোফাইল। কারণ একটি আসল প্রোফাইলে নিজের লিঙ্গ এবং বিপরীত লিঙ্গের বন্ধু মধ্যে একটি সামঞ্জস্য থাকে।

বেসিক ইনফো
নকল প্রোফাইলে অধিকাংশ সময়েই স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় ও চাকরীর তথ্য পাওয়া যায় না। মাঝে মাঝে এমন সব স্কুল কলেজের নাম দেয়া থাকে যেগুলোর কোনো অস্তিত্বই নেই। আবার অনেক সময় অনেক ভালো স্কুল কলেজের নাম দেয়া থাকে কিন্তু কোনো ব্যাচমেটকে ট্যাগ করা থাকে না সেখানে। এমনকি কোন ব্যাচ ছিলো সেটাও লেখা থাকে না সেখানে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *