মাছ খেয়ে এক রাতেই যুবতী থেকে বৃদ্ধা!

সুখের সংসার ভালোই চলছিল ২৬ বছর বয়সী গৃহবধূ থি ফুয়ংয়ের। কিন্তু হ’ঠাৎ করেই মাছ খেয়ে এক রাতেই বৃ’দ্ধ হয়ে গে’লেন তিনি।ভিয়েতনাম নেট ব্রিজ নামের একটি অনলাইনের খবরে বলা হয়েছে, তিন বছর আগে স্বামী ঘরে এনেছিলেন এক অ’জা’না সামুদ্রিক মাছ।

বেশ আগ্রহ নিয়েই থি রান্না ক’রেছিলেন সেই মাছ। এরপর প্রথমে তার শ’রীরে অ্যা’লার্জি দেখা দেয়। পুরো শ’রীর চুলকাতে থাকে। স’হ্য ক’রতে না পেরে ডাক্তারের কাছে যান এবংঅ্যা’লার্জির ওষুধ নিয়ে ফি’রে আসেন।

এসে বি’ছানায় ঘুমিয়ে প’ড়েন। কিছুক্ষণ পর তার স্বামী তাকে একজন বুড়ি হিসেবে দেখ’তে পান। প্রথমে তিনি ঘা’বড়ে যান। কিন্তু পরে বুড়ির কণ্ঠ শুনে বুঝ’তে পারেন তিনি তার স্ত্রী’।

পরে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ডাক্তারের কাছে যান ওই দম্প’তি। শেষ পর্যন্ত তারা চীনে যান ডাক্তার দে’খাতে। চীনের ডাক্তাররা জা’নান, তারা যে মাছ খে’য়েছিলেন তাতে এক ধ’রণের বি’ষ ছিল।

সেই বি’ষক্রিয়ায় তার এই অব’স্থা হয়েছে। শুধু তাই নয় এ রো’গের জন্য তাকে অনেক দা’মী ওষুধ খেতে হবে। শেষ পর্যন্ত স্বামী তার প্রায় সব স’ম্পদ বিক্রি করে স্ত্রী’র জন্য সেই ওষুধ কে’নেন। কিন্তু তাতেও কোনো উ’ন্নতি হয়নি।

তবে ফুয়ংয়ের স্বামী থান তুয়েন জা’নান, এই প’রিবর্তনে স্ত্রী’র প্রতি তুয়েনের ভালোবাসা একটুও ক’মেনি। স্ত্রী’ ফুয়ংও জা’নান, সামুদ্রিক মাছই তার এই অ’বস্থার জন্য দা’য়ী। তবে তিনি তার স্বামীর কাছ থেকে পূর্ণ স’ম’র্থন পে’য়েছেন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *