যে গ্রামের সুন্দরী মেয়েদেরও কেউ বিয়ে করতে চায় না

যে গ্রামের মেয়েদের বিয়ে করতে হবে শুনলেই ছেলেরা পালায়। গ্রামটি কিন্তু গণ্ডগ্রাম নয়, যোগাযোগ ব্যবস্থাও ভালো। আবার এই গ্রামের মেয়েরা যথেষ্ট সুন্দরীও। তারপরও এই গ্রামে ছেলেরা বিয়ে করতে চায় না। মেয়েদের জন্য এই অভিশপ্ত গ্রামটি হলো রতনপুর। ভারতের ভোজপুর জেলায় অবস্থিত।মেয়েদের বিয়ে না হওয়ার কারণ হল বানরের উৎপাত। এই গ্রামের বানরের দলটি বেশ সক্রিয়। স্থানীয় পত্রিকায় মাঝে মধ্যেই ভোজপুর জেলার রতনপুর গ্রামের বানরের নানা কাহিনী উঠে আসে।এই গ্রামে বাসিন্দাদের তুলনায় বানরের সংখ্যা অনেক বেশি। গ্রামবাসীদের সবসময় আতঙ্কের মধ্যে রাখে এখানকার বানরের দল। বিয়ে কিংবা জন্মদিন এমনকি শ্রাদ্ধ অনুষ্ঠানেও বানরের দল হানা দিতে দেরি করে না। সংঘবদ্ধ হয়ে এসে খাবার নষ্ট করে চলে যায়। ধাওয়া দিলে দাঁত-মুখ খিচিয়ে উল্টো তেড়ে আসে। ক্ষেপে গিয়ে আরও বেশি তুলকালাম কাণ্ড ঘটায়।বানরের আক্রমণের চেয়ে নিরাপদে থাকাটাই বেশি শ্রেয় মনে করেন পাত্রপক্ষ। তাই অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি এড়াতে ওই গ্রামে যেতে চায় না কোন পাত্র। যখন রতনপুর গ্রাম থেকে কোন বিয়ের প্রস্তাব আসে, তখন বর এবং তার পরিবার সুস্পষ্ট এই কারণ দেখিয়ে ঘটককে বিদায় করে দেয়।স্থানীয় প্রশাসন এই বিপর্যয় রোধে যথাসাধ্য চেষ্টা করেছে। কিন্তু বানরের ক্রমবর্ধমান সংখ্যা বৃদ্ধির কারণে তারা সফল হয়নি। বিশেষ করে কোনো আয়োজন উপলক্ষ্যে যখন ভালো-মন্দ খাবার তৈরি করা হয়, তখন বানরগুলো হামলা চালায়। অতীতেও এই গ্রামে এভাবে অনেক বিয়ের অনুষ্ঠান ভুণ্ডল হয়ে গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *