যে কারনে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পথশিশু জিনিয়াকে

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি থেকে নিখোঁজ হওয়া পথশিশু জিনিয়া আক্তারকে গত রাতে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার আমতলার একটি বাসা থেকে উদ্ধার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ। অপহরণে জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয় নূর নাজমা আক্তার লোপা তালুকদারকে। অপহরণের পর খারাপ উদ্দেশ্যে তাকে নিয়ে যায় গ্রেফতার নূর নাজমা আক্তার লোপা। নারায়ণগঞ্জ থেকেই জিনিয়াকে উদ্ধার করে গোয়েন্দা পুলিশ।

মঙ্গলবার (৮ সেপ্টেম্বর) দুপুরে রাজধানীর মিন্টো রোডে ডিবি কার্যালয়ের গেটে এক সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা মহানগর ডিবির যুগ্ম কমিশনার মাহবুব আলম এ তথ্য জানান।

মাহবুব আলম বলেন, জিনিয়াকে অপহরণের অভিযোগে গ্রেফতার লোপা খারাপ উদ্দেশ্যে তাকে নিয়ে যায়। সে জিনিয়াকে নারায়ণগঞ্জে তার এক বোনের বাসায় লুকিয়ে রেখেছিল। এ বিষয়ে বিস্তারিত জানতে আমরা তদন্ত করছি। এখনই কিছু বলা যাচ্ছে না। উদ্ধার হওয়া জিনিয়াকে আদালতের মাধ্যমে তার মায়ের কাছে বুঝিয়ে দেওয়া হবে বলে জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

তিনি আরও বলেন, ১ সেপ্টেম্বর টিএসসি থেকে নিখোঁজ হয় জিনিয়া। পরে গত ২ সেপ্টেম্বর শাহবাগ থানায় মেয়ের নিখোঁজের তথ্য উল্লেখ করে একটি সাধারণ ডায়েরি করেন তার মা। এরপর জিনিয়ার খোঁজে মাঠে নামে ডিবির একটি গোয়েন্দা দল। পাঁচ দিনেও মেয়ের সন্ধান না পেয়ে শাহবাগ থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা করা হয়। এরপর ডিবির একটি দল নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা থানার আমতলা থেকে উদ্ধার করে ঢাকায় নিয়ে আসা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *