শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জন্য বড় সুখবর দিলেন পলক

মহামারী করোনার মধ্যে দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোকে বড় সুখবর দিয়েছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।তিনি বলেছেন, ‘এলাকার জনসংখ্যা ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পূর্ব যোগ্যতা বিবেচনায় নিয়ে দেশে আরও পাঁচ হাজার শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব স্থাপন করা হবে।বৃহস্পতিবার (৩ সেপ্টেম্বর) তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগের ২০২০-২১ অর্থবছরের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি (এডিপি) বাস্তবায়ন পর্যালোচনা সভা অনলাইন প্ল্যাটফর্মে অনুষ্ঠিত হয়।

সেই সভায় সংসদ সদস্যদের তালিকার ভিত্তিতে দেশে আরও পাঁচ হাজার শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব স্থাপনের বিষয়ে আলোচনা হয়। প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক সভাপতি হিসেবে এ সভায় অনলাইনে যুক্ত হন।সভায় আইসিটি বিভাগের সিনিয়র সচিব এনএম জিয়াউল আলম, বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ, বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তরসহ বিভাগের অধীনস্থ বিভিন্ন সংস্থার প্রধান এবং বিভিন্ন প্রকল্প পরিচালকরাও অনলাইনে যুক্ত হন।

সভায় আইসিটি বিভাগের চলতি অর্থবছরে গৃহীত প্রকল্পগুলোর বাস্তবায়ন কর্মপরিকল্পনা নিয়ে, বিশেষ করে এটুআই প্রোগ্রাম জাতীয় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অবকাঠামো উন্নয়ন ইনফো সরকার-৩ প্রকল্প, মোবাইল গেম অ্যান্ড অ্যাপ্লিকেশনের দক্ষতা উন্নয়ন প্রকল্প, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব হাই-টেক পার্ক রাজশাহী প্রকল্প,বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব হাই-টেক পার্ক সিলেট প্রকল্প, লার্নিং অ্যান্ড আর্নিং ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্ট, উদ্ভাবন ও উদ্যোক্তা উন্নয়ন একাডেমি প্রতিষ্ঠাকরণ প্রকল্পসহ অন্য সব প্রকল্পের আর্থিক ও বাস্তব অগ্রগতি নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়।সংস্থা প্রধান ও প্রকল্প পরিচালকরা নিজ নিজ প্রকল্পের বাস্তবায়ন পরিকল্পনা ও সর্বশেষ অগ্রগতি সভায় তুলে ধরেন।

প্রতিমন্ত্রী কর্মপরিকল্পনা অনুযায়ী গুণগতমান বজায় রেখে প্রকল্পের কাজ যথাসময়ে শেষ করতে প্রকল্প পরিচালকদের প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেন।এছাড়া প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী ফ্রিল্যান্সারদের আর্থিক ও সামাজিক মর্যাদা নিশ্চিত করতে তাদের পরিচয়পত্র প্রদানের কার্যক্রম আগামী এক মাসের মধ্যে বাস্তবায়নের জন্য কন্ট্রোলার অব সার্টিফাইং অথরিটি (সিসিএ), বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল (বিসিসি) ও মোবাইল গেমস অ্যান্ড অ্যাপস প্রকল্প কর্তৃপক্ষের সঙ্গে সমন্বয় করার জন্য প্রকল্প পরিচালক, লার্নিং অ্যান্ড আর্নিং ডেভেলপমেন্ট প্রকল্প ও সংশ্লিষ্ট সবাইকে জোর তাগিদ দেন।

প্রকল্প পরিচালকরা প্রকল্পগুলোর কাজ নির্ধারিত সময়ের মধ্যে শেষ করারও আশাবাদ ব্যক্ত করেন।প্রসঙ্গত, চলতি (২০২০-২১) অর্থবছরে আইসিটি বিভাগের অধীন মোট ২৫টি প্রকল্পের জন্য এডিপিতে বরাদ্দ রয়েছে ১ হাজার ৪১৪ কোটি ৭৯ লাখ টাকা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *