সুশান্তের বাড়ির সিসিটিভি ক্যামেরা নিয়ে অবিশ্বা’স্য তথ্য দিলেন পু’লিশ

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃ’ত্যুর পর থেকে সুশান্তের বাড়ির সিসিটিভি ক্যামেরা নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় বিভিন্ন কিছু লেখা হচ্ছে। এবিষয়ে এতদিন চুপ থাকার পর এবার মুখ খুলল মুম্বই পু’লিস। সুশান্তের বাড়ির ভিতরে কোনও সিসিটিভি ক্যামেরা ছিল না বলেই জানাচ্ছেন মুম্বই পু’লিসের ডেপুটি কমিশনার (জোন ৯) অ’ভিষেক ত্রিমুখ।কমিশানার( জোন ৯) অ’ভিষেক ত্রিমুখে সাংবাদ সংস্থা ANI-কে জানান, সুশান্ত যে বিল্ডিংয়ে থাকতেন তার সিসিটিভি রেকর্ডিং মুম্বই পু’লিশ হেফাজতে নিয়েছে। তবে অ’ভিনেতার বাড়িতে কোনও সিসিটিভি ক্যামেরা লাগানো নেই।

আপতত ফরেনসিক রিপোর্টে অ’পেক্ষা করছে পু’লিশ’।প্রসঙ্গত, সুশান্তের মৃ’ত্যুর পর সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে নানান ভু’য়ো তথ্য। সুশান্তের বাড়ির সিসিটিভি ক্যামেরা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন অ’ভিনেতার ভক্তরা। কেউ কেই আবার দাবি করেছিলেন, সুশান্তের মৃ’ত্যুর আগের দিন থেকেই সিসিটিভি বন্ধ ছিল।এবার এই সিসিটিভি নিয়ে সমস্ত জল্পনার অবসান ঘটিয়ে মুখ খুলেছে পু’লিস। জানা যাচ্ছে, সাধারণত ফরেন্সিক রিপোর্ট ১০ দিনের মধ্যেই চলে আসে। তবে সুশান্তের মত হাই প্রোফাইল মামালায় ফরেন্সিক টিম কোনও ঝুঁ’কি নিতে চাইছে না, তাই রিপোর্ট আসতে দেরি হচ্ছেসুশান্ত সিং রাজপুতের মৃ’ত্যুর ঘটনায় সোমবার সঞ্জয়লীলা বনশালিকে জিজ্ঞাসাবাদ করে বান্দ্রা থা’নার পু’লিস।

টানা বেশ কয়েকঘণ্টা জেরা করা হয় বলিউডের এই পরিচালক, প্রযোজককে।জানা যাচ্ছে, বনশালি পু’লিসকে জানিয়েছেন, ‘রামলীলা’ ‘বাজিরাও মস্তানি’ দুটি ছবির জন্যই সুশান্তই ছিল তাঁর প্রথম পছন্দ। তবে যশরাজ ফিল্মসের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ থাকার কারণে সুশান্তই তাঁর সেই প্রস্তাব ফিরিয়ে দেন। তা না হলে তিনি কখনওই সুশান্তকে বাদ দিতে চাননি। তবে পরবর্তীকালে অ’ভিনেতাকে আর নতুন কোনও ছবির প্রস্তাবও তিনি দেননি বলে জানিয়েছেন বনশালি।

প্রসঙ্গত, জানা যায়, সুশান্তের সঙ্গে যশরাজ ফিল্মসের যে তিনটি ছবির চুক্তি ছিল। তার মধ্যে শেষ ছবি ‘পানি’র কাজ বন্ধ রাখা হয়েছিল। অ’ভি’যোগ, ইচ্ছাকৃ’তভাবে ‘পানি’ প্রজেক্ট ঝুলিয়ে রেখে যশরাজফিল্ম সুশান্তকে আর অন্য কোনও প্রযোজনা সংস্থার ছবিতে সই করতে দিচ্ছিলেন না। এই কারণেই নাকি সুশান্তের হাতছাড়া হয় ‘গোলিয়োঁ কী’ রাসলীলা রাম-লীলা ‘ ও ‘বেফিকরে’র মত ছবি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *