১৫ জুনের পরে অফিস আ’দালত নিয়ে আসতে পারে যে সিদ্ধান্ত

সোমবার (১৫ জুন) পর্যন্ত যে পদ্ধতিতে সরকারি অফিস পরিচালনার ঘোষণা দিয়েছিল মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ তা আরো দীর্ঘায়িত হচ্ছে। আজ রবিবার (১৪ জুন) অথবা আগামীকাল এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি হতে পারে। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ ও জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। প্রজ্ঞাপনে ১৫ জুনের পরও ‘সীমিত পরিসরে’ অফিস খোলার সিদ্ধান্ত আসতে পারে বলে জানা গেছে।

প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. আহম’দ কায়কাউস গতকাল গণমাধ্যমকে বলেন, ‘এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী সিদ্ধান্ত দেবেন। সিদ্ধান্তের বিষয়টি জানানোর দায়িত্ব মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ ও জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের।’ জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেনও জানিয়েছেন, নতুন করে সাধারণ ছুটি বাড়ানো হবে না। এখন যেভাবে চলছে সেভাবেই চলবে। এদিকে, এলাকভিত্তিক লকডাউন পরিকল্পনা বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে যেসব এলাকা রেড জোনের আওতাধীন থাকবে সেসব এলাকায় সরকারি-বেসরকারি চাকরিজীবীদের জন্য সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হবে। এলাকাভিত্তিক লকডাউন নিয়ে দফায় দফায় বৈঠক করছেন সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা।

গত শুক্রবার কয়েকজন মন্ত্রী ও মেয়রের মধ্যে হওয়া ডিজিটাল বৈঠকে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। ইয়েলো ও গ্রিন জোনে বিদ্যমান নির্দেশনা অনুযায়ী স্বাস্থ্যবিধি মেনে অফিস খোলা থাকবে। গণপরিবহনও চলবে সীমিত পরিসরে। তবে রেড জোনে যে সাধারণ ছুটি থাকবে সে বিষয়ে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে কোনো প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়নি। জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, ‘যে অবস্থায় চলছে সব কিছু সেভাবেই চলবে। নতুন করে ছুটি ঘোষণা করা হবে না। যে এলাকা রেড জোন থাকবে, সেখানে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হবে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *