আবারো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা না খোলা নিয়ে নতুন সিদ্ধান্ত জানালো শিক্ষা মন্ত্রণালয়

মহামারী করোনার কারণে থমকে গেছে গোটা পৃথিবী। বাংলাদেশে ৬৬ দিনের সাধারণ ছুটি শেষে গত ৩১ মে থেকে সীমিত পরিসরে অফিস আদালত খুললেও এখনও বন্ধ রয়েছে দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ার আগ পর্যন্ত যা বন্ধই থাকবে বলে জানিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

এ ব্যাপারে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবুল খায়ের গণমাধ্যমকে জানান, পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হবে।
সম্প্রতি শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনিকে উদ্ধৃত করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি বক্তব্যর প্রচারের পরিপ্রেক্ষিতে একথা জানান তিনি।

আবুল খায়ের বলেন, ‘শিক্ষামন্ত্রীকে উদ্ধৃত করে দেশের কিছু মানুষ বুঝে হোক আর না বুঝেই হোক একটি বক্তব্য ফেসবুকে প্রচার করছেন।’
শিক্ষামন্ত্রীকে উদ্ধৃত করে যে বক্তব্য ফেসবুকে প্রচার হচ্ছে তা হলো, ‘সন্তান ১ বছর লেখাপড়া না করলে মূর্খ হবে না, কিন্তু মহামারী করোনা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছড়িয়ে গেলে অনেক মায়ের কোল খালি হবে।’

এর ব্যাখ্যায় জনসংযোগ কর্মকর্তা খায়ের বলেন, ‘শিক্ষামন্ত্রী এ ধরনের কোনো বক্তব্য কোথাও দেননি। এমন ধরনের শব্দ চয়ন তিনি কোনোদিনও করেন না। যা মানুষের মাঝে বিভ্রান্তি ছাড়াবে।’
খায়ের আরও বলেন, ‘শিক্ষামন্ত্রী বরাবরই বিভিন্ন সাক্ষাৎকারে বলেছেন- আমাদের মুক্তিযুদ্ধের সময়ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নয় মাস বন্ধ ছিল। সেটাও আমরা উৎরে উঠেছি। এখনও সে রকম একটি অবস্থা বিরাজ করছে। আশা করি এটাও আমরা উৎরে উঠতে পারবো।

শিক্ষা কার্যক্রম একেবারে বন্ধ সেটাও বলা যাবে না। সংসদ টিভি ও বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান অনলাইনের মাধ্যমে শিক্ষাকার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। সেখানেও ছাত্র-ছাত্রীরা অনেক লাভবান হচ্ছে। যখনই পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে তখনই শিক্ষাপ্রপ্তিষ্ঠান খুলে দেওয়া হবে। শিক্ষার্থীদের আমরা বিপদের মুখে ঠেলে দিতে পারি না।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *