১০৫ করোনা রোগী নিখোঁজ

চট্টগ্রামে নিরবে করোনা ভাইরাস ছড়াচ্ছে ১০৫ জন নিখোঁজ রোগী। যাদের নমুনা পরীক্ষা করোনা পজিটিভ। এদের খোঁজেও না পেয়ে হতাশ। এ অবস্থায় সংক্রমণ ঠেকাতে চট্টগ্রামকে রেডজোন হিসেবে চিহ্নিত করে কঠোর লকডাউনের কথা বলছেন চিকিৎসকরা। সবশেষ তথ্য অনুযায়ী চট্টগ্রামে করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে ৪ হাজার ৬৮ জন। এর মধ্যে নগরীর কোতোয়ালি এলাকায় ৩৭৯ এবং জেলার হাটহাজারীতে ১৭০ জন। সরকারি হিসাব মতে মৃত্যুর সংখ্যা ১শ।

কেন্দ্রীয় কমিটি স্বাচিপ সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. আ ন ম মিনহাজুর রহমান বলেন, ‘চট্টগ্রামের করোনা রোগীর সংখ্যা অফিসিয়ালি ৪ হাজার পেরোলেও আমরা মনে করি এ সংখ্যা কয়েকগুণ বেশি। আর মৃতের সংখ্যা ১ শ বলা হলেও যারা লাশ দাফন করে তারা বলছে গত আড়াইমাসে এ সংখ্যা সাড়ে ৩ শ।’

আশঙ্কাজনক হারে রোগী এবং মৃত্যুর সংখ্যা বাড়লেও মিলছে না কাঙ্ক্ষিত চিকিৎসা। তাই সংক্রমণ ঠেকাতে চট্টগ্রামকে রেডজোন ঘোষণা করে কঠোর লকডাউন বাস্তবায়নের দাবি জানিয়েছেন চট্টগ্রাম জনস্বাস্থ্য রক্ষা কমিটি সদস্য সচিব ডা. সুশান্ত বড়ুয়া।

জোন ঘোষণার সিদ্ধান্ত না আসলেও চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন ডা. শেখ ফজলে রাব্বি বলছেন, স্বাস্থ্য বিধি মেনে ঘরে না থাকলে করোনা নিয়ন্ত্রণ কঠিন। শুধুমাত্র নগরীতেই ৩ জন চিকিৎসকের মৃত্যুর পাশাপাশি আক্রান্ত হয়েছেন ৯০ জন। আর পুলিশ আক্রান্ত হয়েছে প্রায় ৩শো জন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *