ট্রেন ছাড়ার এক ঘণ্টা আগে পৌঁছাতে হবে স্টেশনে, থাকছে না খাবার

করো’নাভাই’রাস মহামা’রির কারণে দুই মাসেরও বেশি সময় বন্ধ থাকার পর রোববার (৩১ মে) থেকে সীমিত পরিসরে গণপরিবহন (বাস, ট্রেন, নৌযান) চালুর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। আগামীকাল থেকে আট জোড়া ট্রেন ঢাকা থেকে বিভিন্ন রুটে ট্রেন ছেড়ে যাবে। একই সঙ্গে বিভিন্ন স্টেশন থেকে ঢাকায় আসবে। আর ৩ জুন থেকে আরও ১১ জোড়া ট্রেন চলাচল শুরু করবে বলে জানিয়েছেন রেলপথ মন্ত্রী মো. নূরুল ইস’লাম সুজন।

তিনি বলেছেন, ‘ট্রেন ছাড়ার এক ঘণ্টা আগে যাত্রীকে স্টেশনে পৌঁছাতে হবে। আম’রা ট্রেনে খাবার ব্যবস্থা রাখছি না। বিশেষ কেবিনে আম’রা এখন থেকে ট্রেনে আর বালিশ-কাঁথা সরবরাহ করব না। যাত্রা শুরুর পাঁচদিন পূর্বে টিকেট সংগ্রহ করা যাবে। টিকেট ছাড়া কেউ স্টেশনে প্রবেশ করতে পারবেন না।’

শনিবার (৩০ মে) রেলভব‌নের স‌ম্মেলন কক্ষ যমুনায় (৮ম তলা) ক‌রোনা পরবর্তী ট্রেন চলা‌চলের বিষ‌য়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা জানান। একইসঙ্গে বলেন, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখাসহ সব ধরনের স্বাস্থ্যবিধি মেনে রেল পরিচালনা করা হবে।

এ জন্য তাপমাত্রা পরিমাপের সুবিধার্থে যাত্রীদের ট্রেন ছাড়ার কমপক্ষে ৬০ মিনিট পূর্বে স্টেশনে পৌঁছাসহ যাত্রী সাধারণকে বেশ কিছু বিধি মেনে ট্রেনে চলাচল করতে হবে বলে ব্রিফিংয়ে মন্ত্রী উল্লেখ করেন।

তিনি বলেন, ‘প্রত্যেক যাত্রী নিজেকে সুরক্ষায় সচেষ্ট থাকবেন, সহযাত্রীকে সুরক্ষায় সহযোগিতা করবেন। ট্রেনের ৫০ শতাংশ টিকিট বিক্রি করা হবে। সকল ট্রেনের টিকিট অনলাইনে সংগ্রহ করতে হবে, কাউন্টারে টিকিট বিক্রি হবে না। যাত্রী সাধারণকে আবশ্যিকভাবে মাস্ক পরিহিত অবস্থায় স্টেশন এলাকায় বা ট্রেনে প্রবেশ করতে হবে। ট্রেনের অভ্যন্তরে যাত্রীদের নির্দিষ্ট আসনে অবস্থান করতে হবে। ট্রেনে আরোহণ এবং অবতরণের জন্য নির্দিষ্ট দরজা ব্যবহার করতে হবে। বর্তমান স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলার লক্ষ্যে ট্রেনে খাবার সরবরাহ বন্ধ থাকবে। যাত্রার তারিখসহ পাঁচদিন পূর্ব হতে টিকেট ক্রয় করা যাবে।’

তিনি বলেন, ‘যাত্রীদের প্রয়োজনীয় খাদ্য ও পানীয় সঙ্গে নিতে হবে। তাপমাত্রা পরিমাপের সুবিধার্থে যাত্রীদের ট্রেন ছাড়ার কমপক্ষে ৬০ মিনিট পূর্বে স্টেশনে পৌঁছাতে হবে। কোনো অবস্থাতেই টিকেট ছাড়া প্লাটফর্মে প্রবেশ করা যাবে না। দর্শনার্থী/প্লাটফর্ম টিকিট বিক্রয় বন্ধ থাকবে। মাসিক/স্বল্প দূরত্বের যেমন- ঢাকা বিমানবন্দর, জয়দেবপুর, নরসিংদীতে কোনো ট্রেন থামবে না।’

সংবাদ সম্মেলনে রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. সেলিম রেজা, মহাপরিচালক মো. শামসুজ্জামানসহ সংশ্লিষ্ট কর্মক’র্তারা উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *