সাকিব ভাই ছাড়া কেউ আমার খোঁজ নেয়নি: নাসির

বাংলাদেশ দলের এক সময়ের তারকা ক্রিকেটার নাসির হোসেন। দুর্দান্ত সব ইনিংস খেলে জাতীয় দলের ‘দ্য ফিনিশার’ উপাধিও পেয়েছিলেন তিনি। অনেকদিনের কাঙ্খিত চাওয়া দলে ফিনিশারের অভাব পূরণে আশার আলো দেখিয়েছিলেন। সেই আলো ধরে রাখতে পারেননি তিনি। বাজে ফর্ম আর নানা বিতর্কিত কান্ডে বাদ পড়তে হয় জাতীয় দল থেকেই। বাদ পড়ার পর সাকিব ছাড়া আর কেউই খোঁজ নেননি তার।

সম্প্রতি ক্রিকেট ভিত্তিক ওয়েবসাইট ক্রিকফ্রেঞ্জির ফেইসবুক পেজে লকডাউন লাইভে অতিথি হয়ে এসেছিলেন নাসির। সেখানে ক্যারিয়ারের সেই গল্পগুলো নাসির জানিয়েছেন। নাসির বলেন, “আমি যখন জাতীয় দল থেকে প্রথম বাদ পড়লাম। জাতীয় দলে আমার অনেক ফ্রেন্ড আছে, আমরা বিকেএসপিতে এক সঙ্গে পড়ালেখা করেছি, একই রুমে ছিলাম, খুব ভালো ফ্রেন্ড। জাতীয় দল থেকে বাদ পড়ার পর কারো ফোন পাইনি। আমি অনেকেরই ফোন আশা করেছিলাম। আমাকে কেউ ফোন দেয়নি। আমাকে একজন ফোন দিয়েছিল, সেটা হচ্ছে সাকিব ভাই।”

জাতীয় দল থেকে বের হয়ে যাওয়ার অনুভূতি জানিয়ে নাসির বলেন, “আমি সাকিব ভাইয়ের কথা বলবো। শুধু আমি না সাকিব ভাইয়ের যত জুনিয়র ক্রিকেটার আছে, সিনিয়র ক্রিকেটার আছে তাদের জিজ্ঞেস করবেন সাকিব কেমন হেল্পফুল। সবাই বলবে সেটা। জাতীয় দল এমন একটা জায়গা আমরা যখন থাকি, মনে হয় এটাই সবকিছু। জাতীয় দল থেকে যখন বের হয়ে যায়, তখন সে পুরো পরিবার থেকেই বের হয়ে যায়।”

সাকিবের সঙ্গে কথোপকথনের বর্ণনা দিয়ে তিনি আরও বলেন, “তিনি কল দিয়েছিলেন শুধু বলতে যে, মন খারাপ করিস না, আবার ভালো খেলে কামব্যাক করবি। এই ফোনেই তিনি আমার চোখে উপরের লেভেলে চলে গেছেন। সাকিব ভাইয়ের সাথে আমার সব সময় কথা হয় আমরা টুকটাক সব কথাই শেয়ার করি। সাকিব ভাইও শেয়ার করে আমিও করি।”

২০১৭ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সর্বশেষ টেস্ট খেলেছেন নাসির। একই বছর দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে শেষ ওয়ানডে খেলেছেন তিনি। জাতীয় দলে ফিরতে এখনও লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন নাসির।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *