৮ বছরে একসঙ্গে ৩ বাচ্চার দেখাশোনা করায় তোমাকে ধন্যবাদ

ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান ও উম্মে শিশির জুটির দাম্পত্য জীবন ৮ বছর পূর্ণ হলো। ২০১২ সালের ১২ ডিসেম্বর (১২-১২-১২) বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব ও শিশির।

বিবাহ বার্ষিকীতে স্ত্রীকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ‍আবেগঘন পোস্ট দিয়েছেন সাকিব। নিজের ভেরিফায়েড পেইজে এক পোস্টে তিনি লিখেছেন, ‘৮ বছরে একসঙ্গে ৩ বাচ্চার দেখাশোনা করায় তোমাকে ধন্যবাদ। আমি তোমাকে কতটা ভালোবাসি তা বলতে পারব না তবে আমি তোমাকে একটি কথা বলতে পারি যে তোমার সাথে আমার জীবনের দীর্ঘতম জুটি গড়ব। আমার জীবনে তুমিই সবচেয়ে বড় প্রাপ্তি। ভালোবাসি তোমায়।’

এদিকে শিশির তার ভেরিফায়েড ফেইসবুক পেজে লিখেছেন,‘আমার প্রিয় স্বামীর প্রতি! আমরা একে অন্যকে প্রতিদিনই বলি ‘‘আমি তোমাকে ভালোবাসি’’। তবে তুমি যখন এই কথাটা আমার কানে ফিসফিস করে বলো, সেটাই আমার সবচেয়ে বেশি প্রিয়। আজ আমাদের বিয়ের আট বছর হলো, অথচ মনে হয় আমরা একে অন্যকে কত আগে থেকে জানি। খুব অল্প বয়সে আমাদের পরিচয় হয়েছিল এবং আমরা একে অন্যের হাত ধরে রাখার প্রতিজ্ঞা করেছিলাম।’

শিশির আরো লেখেন, ‘আমরা একসঙ্গে বেড়ে উঠেছি। বুড়ো বয়সে আমরা একে অন্যের পাকা চুল টেনে তুলব, কারণ আমাদের চোখে এখনো আমরা সেই ২০ বছর বয়সের জুটি। এই শুরুটা কখনোই থেমে যাওয়া উচিত নয়। এটা আমার ডায়েরির একটা ছোট্ট অংশ, যা আমি শেষ পর্যন্ত চালিয়ে যেতে চাই। শুভ বিবাহবার্ষিকী স্বামী। আমি তোমাকে ভালোবাসি এবং সন্তানদের নিয়ে আমরা যে ছোট্ট একটি পৃথিবী তৈরি করেছি সেটাকেও। আলহামদুলিল্লাহ।’

Author: Rijvi Ahmed

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *