বাংলাদেশের পদ্মা সেতু নি’র্মাণ নিয়ে যা বললেন ইম’রান খান

বৃহস্প’তিবার সকা’লে মুন্সি’গ’ঞ্জের মা’ওয়া প্রান্তে সেতুর ১২ ও ১৩ নম্বর পি’লারের ওপর বসা’নো হয় ৪১তম, অর্থাৎ সর্ব’ষ স্প্যা’নটি। ৪০তম স্প্যান বসা’নো’র ছয় দি’নের মা’থায় বসা’নো হয় এ স্প্যান।

১৫০ মিটার ‘দৈ’র্ঘ্যের একটি স্প্যা’ন বসা’নোয় ৬ হাজার ১৫০ মিটার সে’তুর অব’কাঠা’মো এখন দৃশ্য’মান। এ’দিকে স্বপ্নে’র পদ্মা সেতু নির্মাণ কাজের সফ’লতায় বাংলাদে’শকে অ’ভিনন্দন জানি’য়েছে পা’কি’স্তান।

আজ শুক্রবার এ অগ্র’গতিতে অ’ভিন’ন্দন জানায় পা’কিস্তান। তাদের পক্ষ থেকে ঢাকা হাইকমিশনের ভেরি’ফায়েড ফেই’সবুক পেজ থেকে এ অ’ভিনন্দন জানানো হয়। এতে বলা হয়, ‘পদ্মা সেতু নি’র্মাণে বাংলাদে’শকে অ’ভিনন্দন।’

উ’ল্লেখ্য, ২০১৪ সালের ডিসে’ম্বরে পদ্মা সেতুর নি’র্মাণ কাজ শুরু হয়। ২০১৭ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর ৩৭ ও ৩৮ নম্বর খুঁটি’তে প্রথম স্প্যান বসা’নোর মধ্য দিয়ে দৃশ্যমান হতে শুরু করে পদ্মা সেতু। এর পর একে একে বসা’নো হয় ৪০টি স্প্যা’ন। এতে দৃশ্য’মান হয়েছে সেতুর ৬ কিলোমি’টার। ৪২টি পিলারে ১৫০ মিটার দৈ’র্ঘ্যের ৪১টি স্প্যান ব’সিয়ে ৬ দশমিক ১৫ কিলো”মিটার দীর্ঘ পদ্মা সেতু তৈরি হচ্ছে।

মূল’সেতু নি’র্মাণের জন্য কাজ করছে চীনের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জি’নিয়া’রিং কম্পানি (এমবিইসি) ও নদী শা’সনে’র কাজ ক’ছে দেশটির আ’রেকটি প্রতিষ্ঠান সি’নো’হাইড্রো করপো’রেশন। দুটি সংযোগ সড়ক ও অ’বকাঠা’মো নির্মা’ণ করেছে বাংলাদেশের আবদুল মো’মেন লিমি’টেড।

Author: Rijvi Ahmed

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *