হিরো আলমের বিরুদ্ধে চু’রির মা’মলা

বিতর্ক আর হিরো আলম যেন মুদ্রার এপিঠ ওপিঠ। সোশাল মিডিয়ার কল্যাণে আলোচনায় আসা বগুড়ার এই যুবক কোনো কিছু সমালোচনা ছাড়া করতেই পারেন না যেন। বিতর্ক যতোই হোক, তার দরকার ভিউ। সেই টার্গেটে হিরো আলম বরাবরই সফল। গান গেয়েও ইউটিউবে বেশ ভালো সাড়াও পেয়েছেন তিনি।

তবে ভাগ্যে জুটলো মামলাও। সম্প্রতি তিনি ‘বাবু খাইছো’ শিরোনামের একটি গান গেয়ে নিজের ইউটিউবে ছেড়েছেন। সেটি লিখেছেন মম রহমান। তবে সোলস ব্যান্ডের অন্যতম সদস্য ও সংগীত পরিচালক মীর মাসুমের সুরে ভাইরাল হওয়া ‘বাবু খাইছো’ গানের কথা ও সুর হুবহু নকলের অভিযোগ উঠেছে।

সেই অভিযোগ এনে হিরো আলমের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলাও ঠুকে দিয়েছেন মীর মাসুম।

সম্প্রতি তুমুল আলোচনায় আসা ‘বাবু খাইছো’ গানটি মীরের সুরে লিখেছেন ও গেয়েছেন তারই ছোট ভাই ডিজে মারুফ। এটি ৫ সেপ্টেম্বর ঈগল মিউজিকের ব্যানারে প্রকাশ হয়। এরপর ইউটিউব, ফেসবুক হয়ে তুমুল জনপ্রিয় ও ভাইরাল হয় গানটি। গানটির মাধ্যমে সাম্প্রতিক প্রেমিক-প্রেমিকাদের কিছু অসঙ্গতি বা কালচার মজার ছলে তুলে আনেন মীর ব্রাদার্স।

এ গানটির সাফল্য দেখে হিরো আলমও তার অনুকরণে নিজের গানটি তৈরি করেছেন। মীর ব্রাদার্সের অভিযোগ, গানটির শিরোনাম, চুম্বক অংশ ও সুর হুবহু নকল করেছেন হিরো আলম। তাদের আরও দাবি, এই গানটি তৈরির মাধ্যমে মূল গান, শিল্পী ও শিল্পের মানহানি করেছেন হিরো আলম। তাই দার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নিয়েছেন তারা।

মাসুম গণমাধ্যমে জানিয়েছেন, গেল রোববার (৬ ডিসেম্বর) ডিজিটাল সুরক্ষা আইনের ২২-২৩-২৪ ধারায় হিরো আলমের বিরুদ্ধে সাইবার ক্রাইম ট্রাইব্যুনালে মামলা করা হয়েছে। বাদী হয়েছেন মীর মাসুম। তার পক্ষে মামলাটি দায়ের করেছেন আইনজীবী দিদার-উস-সালাম।

আইনজীবী জানান, মামলাটি এখন তদন্তের জন্য আদালত সিআইডি’তে পাঠিয়েছেন।

এ প্রসঙ্গে হিরো আলমের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তারা সাড়া পাওয়া যায়নি।

Author: Rijvi Ahmed

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *