প্রেমিকের উপস্থিতিতেই আবাসিক হোটেলে নিজের জীবন দিয়ে দিল অভিনেত্রী

দক্ষিণ ভারতের জনপ্রিয় অভিনেত্রী ও ভিডিও জকি চিত্রা আত্মহত্যা করেছেন বলে জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম। প্রেমিকের উপস্থিতিতেই মঙ্গলবার (৮ ডিসেম্বর) চেন্নাইয়ের নাজরেথপেট্টাই এলাকার একটি হোটেলে মাত্র ২৮ বছর বয়সেই তিনি আত্মহত্যা করেছেন তিনি।

জানা যায়, কিছুদিন আগেই ব্যবসায়ী হেমন্ত রাওয়ের সঙ্গে বিয়ের বাগদান সম্পন্ন হয়েছিল তার। দক্ষিণ ভারতীয় সিনেমার দুনিয়ায় তিনি যথেষ্ট জনপ্রিয়। হাতেও ছিল প্রচুর কাজ। তার পরেও এ দুর্ঘটনায় শোকস্তব্ধ দক্ষিণী ছবির দুনিয়া।

এটি হত্যা না আত্মহত্যা? জানতে অভিনেত্রীর দেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে পুলিশ। ধারণা করা হচ্ছে, সম্ভবত ডিপ্রেশন বাসা বেঁধেছিল চিত্রার মনে। তারই ফলাফল হয়ত এই আকস্মিক অঘটন।

মৃত্যুর আগের মুহূর্ত পর্যন্ত কী কী করেছেন চিত্রা? ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এবিপি নিউজ জানায়, মঙ্গলবার দুপুর আড়াইটায় চিত্রা হোটেলে ফেরেন। তার আগে ইভিপি ফিল্ম সিটিতে শ্যুটিং করছিলেন তিনি। হেমন্তও ছিলেন হোটেলে। পুলিশকে হেমন্ত জানিয়েছেন, দুপুরে হোটেল ফিরে স্নানের জন্য বাথরুমে যান চিত্রা। অনেক পরেও কোনও সাড়া না পাওয়ায় প্রথমে তিনি বন্ধ দরজায় ধাক্কা দেন। জানান হোটেল কর্মীদেরও। তারাই ডুপ্লিকেট চাবি দিয়ে দরজা খোলেন। তখনই দেখা যায় গলায় ফাঁস দিয়ে সিলিং থেকে ঝুলছেন চিত্রা।

খবর ছড়াতেই প্রশ্ন উঠেছে, মৃত্যুর নেপথ্য কারণ সুশান্ত সিংহ রাজপুতের মতোই অবসাদ? নাকি শ্রীদেবীর মৃত্যুর পুনরাবৃত্তি? নাকি অন্য কোনও রহস্য লুকিয়ে আছে? উত্তর খুঁজতে শুরু হয়েছে প্রশাসনিক তদন্ত।

চিত্রা তামিল ভাষার বেশ কয়েকটি চ্যানেলে উপস্থাপক হিসেবে কাজ করেছিলেন। তার শেষ কাজ ‘পান্ডিয়া স্টোর্স’ ধারাবাহিকে অভিনয়। চিত্রা অভিনীত চরিত্র ‘মল্লাই’ তাকে প্রচারের আলোয় নিয়ে এসেছিল। সোশ্যাল মিডিয়াতেও সক্রিয় ছিলেন তিনি। ইনস্টাগ্রামে তার প্রায় ১৫ লাখ অনুসারী রয়েছে।

Author: Rijvi Ahmed

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *