ভৈরবে ধরা পড়ল বিরল প্রাণী

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে ‘বিরল’ প্রজাতির একটি প্রাণীর সন্ধান মিলেছে। এর আগে এ ধরনের প্রাণী এলাকাবাসীর নজরে আসেনি। আজ মঙ্গলবার বিকেলে উপজেলার শিমুলকান্দি ইউনিয়নের মধ্যেরচর গ্রামে স্থানীয় জনতার হাতে প্রাণীটি ধরা পড়ে। প্রাণীটিকে ঘিরে এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

এলাকাবাসী জানান, বিকেল চারটার দিকে মধ্যেরচর পশ্চিমপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কাছে একটি বাঁশবাগানে প্রাণীটি প্রথমে স্থানীয়দের নজরে আসে। পরে প্রাণীটি দেখতে লোকজন জড়ো হন। পরে কয়েক শ মানুষ একত্র হয়ে প্রাণীটিকে ধরে।
প্রত্যক্ষদর্শী মধ্যেরচর পশ্চিমপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক তাজুল ইসলাম বলেন, ‘আমাদের অঞ্চলের মানুষ এই ধরনের প্রাণী এর আগে কখনো দেখেনি।’

প্রাণীটি ধরা পড়ার ঘটনা নজরে এসেছে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) লুবনা ফারজানার। তিনি বলেন, প্রাণীটির পরিচয় নিশ্চিত হতে বন্য প্রাণী বিভাগের সহায়তা চাওয়া হয়েছে। ইতিমধ্যে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের মাধ্যমে প্রাণীটি উপজেলা সদরে আনার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

ভৈরব উপজেলা বন কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম বলেন, প্রাণীটির পরিচয় সম্পর্কে তাঁরা নিশ্চিত হতে পারছেন না। পরে প্রাণীটির ছবি বিশেষজ্ঞদের কাছে পাঠিয়েছেন।
বিজ্ঞাপন

ভৈরব উপজেলা বন কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম বলেন, প্রাণীটির পরিচয় সম্পর্কে তাঁরা নিশ্চিত হতে পারছেন না। পরে প্রাণীটির ছবি বিশেষজ্ঞদের কাছে পাঠিয়েছেন। প্রাণী বিশেষজ্ঞরা ধারণা করছেন, প্রাণীটি গন্ধগোকুল প্রজাতির হতে পারে। তবে পুরোপুরি নিশ্চিত হতে বন বিভাগ প্রাণীটিকে উদ্ধার করে নিজেদের হেফাজতে নেবে।

গন্ধগোকুল দেশের একটি বিপন্ন প্রজাতির প্রাণী। ২০০৮ সাল থেকে ইন্টারন্যাশনাল ইউনিয়ন ফর কনজারভেশন অব নেচার (আইইউসিএন) প্রাণীটিকে বিপন্ন (লাল তালিকাভুক্ত) ঘোষণা করেছে। পাশাপাশি বাংলাদেশের ২০১২ সালের বন্য প্রাণী (সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা) আইনের তফসিল-১ অনুযায়ী প্রজাতিটি সংরক্ষিত ঘোষণা করা হয়েছে।

Author: Rijvi Ahmed

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *