বাসর রাতে নববধূ নিখোঁজ

বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলার দত্তেরাবাদ গ্রামে স্বামীর বাড়ি থেকে বাসর রাতে

নববধূ নিখোঁজ হয়েছেন। এ ঘটনায় থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়েছে।

সোমবার (১৩ জুলাই) দুপুরে নববধূর ভাই আরিফুল ইসলাম আগৈলঝাড়া থানায় জিডি করেন।

স্থানীয়রা জানান, গত শুক্রবার (১০ জুলাই) আগৈলঝাড়া উপজেলার দত্তেরাবাদ গ্রামের

মৃত নুর আলম হাওলাদারের ছেলে সোহাগ হাওলাদারের সঙ্গে পাবনার আমিনপুর থানার

রাজ নারায়ণপুর গ্রামের হারিস শেখের মেয়ে কলেজছাত্রী সুমাইয়া আক্তার মীমের বিয়ে

হয়। রোববার (১২ জুলাই) নববধূ মীম, নানি আয়শা খাতুন ও তার ভাই আরিফুল

বরযাত্রীর সঙ্গে আগৈলঝাড়ায় সোহাগ হাওলাদারের বাড়িতে আসেন।

রোববার বাসর রাতে স্বামীর বাড়ি থেকে নিখোঁজ হন নববধূ মীম।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, হঠাৎ করে সোহাগ ও মীমের বিয়ে হয়। সোহাগের পরিবার মীমের

বিষয়ে আগে থেকে কোনো খোঁজখবর নেয়নি। ধারণা করা হচ্ছে, মীমের সঙ্গে অন্য

কারও সম্পর্ক রয়েছে। নিজের ইচ্ছা না থাকলেও পরিবারের সিদ্ধান্তে সোহাগকে বিয়ে

করেছেন মীম। সেজন্য স্বামীর বাড়ি থেকে মীম পালিয়ে গেছেন।

মীমের স্বামী সোহাগ হাওলাদার বলেন, রোববার রাতে খাবার-দাবার খেয়ে বাসর ঘরে

গিয়ে দেখি স্ত্রী নেই। এরপর বিভিন্ন স্থানে খোঁজখবর নিই। সোমবার রাত সাড়ে ৮টা পর্যন্ত

মীমের সন্ধান পাইনি। ঘরে থাকা নগদ ৫০ হাজার টাকা, কয়েক ভরি স্বর্ণালঙ্কার ও

মোবাইল দেখতে না পেয়ে নিশ্চিত হয়েছি মীম পালিয়ে গেছে।

আগৈলঝাড়া থানা পুলিশের ওসি মো. আফজাল হোসেন বলেন, সুমাইয়া আক্তার মীম

নামে এক নববধূ নিখোঁজ হয়েছেন বলে সোমবার দুপুরে তার ভাই আরিফুল ইসলাম

থানায় জিডি করেছেন। সুমাইয়া আক্তার মীমের সন্ধানে বরিশাল ও পাবনাসহ বিভিন্ন

থানায় বেতার বার্তা ও ছবি পাঠানো হয়েছে। তথ্যসূত্র: জাগোনিউজ২৪

Author: Rijvi Ahmed

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *