‘বউ ফেরত চাই’, শ্বশুরবাড়ির সামনে স্বামীর ধরনা

এ যেনো সিনেমার কাহিনী! স্ত্রীর সঙ্গে বিভিন্ন সময়ে তোলা ছবি দিয়ে সাজানো পোস্টার। যাতে বিয়ে রেজিস্ট্রির প্রমাণপত্রও সাটানো; লেখা- ‘৭ বছরের প্রতারণা’, ‘বিচার চাই’। হাতে ‘বউ ফেরত চাই’ সম্বলিত প্লাকার্ড। স্ত্রীর বাড়ির সামনে এভাবেই ধরনায় বসেন এক স্বামী।

ঘটনাটি ভারতের উত্তর চব্বিশ পরগনার অশোকনগরের। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের খবরে বলা হয়েছে, শনিবার (৫ ডিসেম্বর) ‘শ্বশুরবাড়ি’র সামনে ধরনায় বসেছেন প্রেমিক-স্বামী সৌমেন দত্ত। তার দাবি, তার বউকে ফেরত দিতে হবে, তা না হলে তিনি ধরনা চালিয়ে যাবেন। খবর পেয়ে স্থানীয় পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। তাদের আশ্বাসে ধরনা থেকে বিরত হন সৌমেন।

স্থানীয় সূত্রের বরাতে সংবাদমাধ্যমটি জানিয়েছে, অশোকনগরের মানিকতলার সৌমেনের সঙ্গে দেবীনগরের গার্গী দাসের সাত বছরের সম্পর্ক। সাড়ে তিন বছর আগে তারা রেজিস্ট্রি বিয়ে করেন। আইনি বিয়ে করলেও উভয়েই নিজ নিজ বাড়িতে থাকতেন। সৌমেন উচ্চ মাধ্যমিকের পরে আর পড়াশুনা করেননি। গার্গী পড়াশোনা চালিয়ে যাচ্ছিলেন। সৌমেনের দাবি, গার্গীর পড়াসহ অন্যান্য খরচও নিয়মিত দিচ্ছিলেন তিনি।

তবে এই মসৃণ সম্পর্কে সম্প্রতি বাধা হয়ে দাঁড়ায় গার্গীর পরিবার। গার্গীর বাড়ির লোকজন তাকে সৌমেনের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করতে বলে। তারপর থেকেই সৌমেন গার্গীর সঙ্গে কোনওভাবে যোগাযোগ করে উঠতে পারছেন না।

আরো পড়ুন: জেরুজালেমে গির্জায় আগুন দেয়ার চেষ্টা রুখে দিলেন মুসলিমরা

তার দাবি, ফোনেও তার সঙ্গে গার্গীকে কথা বলতে দেয়া হচ্ছে না। এমনকি গার্গীর মা এবং ভাই তাকে ফোনে হুমকি দিচ্ছেন বলেও অভিযোগ করেন সৌমেন। তারা গার্গীর সঙ্গে তার সাত বছরের সম্পর্ক এবং রেজিস্ট্রি বিয়ে সব কিছুই অস্বীকার করছেন।

তবে বিষয়টি যখন ধরনায় গড়ায় তখন এলাকায় শোরগোল পড়ে যায়। আর তাতে হস্তক্ষেপ করে সমাধানের আশ্বাস দেয় পুলিশ।

Author: Rijvi Ahmed

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *