মাশরাফির সকল কর্ম কান্ড দেখে এবার মাশরাফির নামে প্রশংসা করে যা বললেন সৌরভ গাঙ্গুলি।

খেলোয়াড়ি জীবনে তাকে ডাকা হতো ‘প্রিন্স অব কলকাতা’ অর্থাৎ কলকাতার রাজপুত্র নামে। তিনি যে আসলেই কলকাতার রাজপুত্র, তা প্রমাণ করে চলেছেন পদে পদে।
যেকোন জরুরি অবস্থায় কলকাতার মানুষদের পাশে দাঁড়িয়ে তাদের ক’ষ্ট লাঘবের চেষ্টা করে যাচ্ছেন কলকাতার রাজপুত্র সৌরভ গাঙ্গুলি।ভারতে হয়ে ক্রিকেট খেলা ছেড়েছেন প্রায় এক যুগ আগে। এখন তিনি রয়েছেন ভারতের ক্রিকে’টের সর্বোচ্চ দায়িত্বে,ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড- বিসিসিআইয়ের সভাপতি পদে।এ দায়িত্বে শুধুমাত্র ক্রিকে’টের দিক দেখার কথা থাকলেও, মানবিক বি’ষয়গুলোতেও বেশ নজর রেখেছেন গাঙ্গুলি।

ক’রোনাভা’ইরাসেের প্রাদুর্ভাব আ’টকাতে গলদঘর্ম হচ্ছে ভারত। দেশটিতে বর্তমানে চলছে ২১ দিনের লকডাউন। ফলে বেশ দুর্ভোগের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে খেটে খাওয়া মানুষ।এবার তাদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন বোর্ড অব কন্ট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়ার (বিসিসিআই) সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলি।দৈনিক ১০ হাজার জন অসহায় মানুষের খাবার ব্যবস্থা করেছেন ভারতের সাবেক এই অধিনায়ক।তার মতোই মাশরাফিও করে যাচ্ছেন দেশের জন্য নানান কাজ । এই করোনা ভাইরাস এর জন্য তার নিজ গ্রামে করে যাচ্ছেন বিভিন্ন উনয়ন মূলুক কাজ । যা আর কাঊকে করতে দেখা যাচ্ছে না ।

এসব দেখে সৌরভ গাঙ্গু’লি বলেন মাশরাফির মত সবাই কাজ করলে যে কোন কিছু খুব সহজেই সামাল দেওয়া যাবে । সবাইকে এক সাথে সৎ ভাবে কাজ করার পরামর্শ ও দিয়েছেন তিনি ।জানা গেছে ইন্টারন্যাশনাল সোসাইটি ফর কৃষ্ণ কনশাসনেস (ইসকন) সংঘ নামের একটি এনজিওর মাধ্যমে দরিদ্র মানুষের মাঝে খাবার বিতরণ করছেন তিনি। ইসকনের কলকাতা শাখার মুখপাত্র ও ভাইস প্রে’সিডেন্ট রাধারমণ দাস বি’ষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন,‘ইসকনের কলকাতা শাখা থেকে আমরা প্রতিদিন ১০ হাজার মানুষের খাবার ব্যবস্থা করি। আমাদের প্রিয় সৌরভদা আমাদের সহায়তায় এগিয়ে এসেছেন এবং অনুদান দিয়েছেন, যা দিয়ে আমরা দ্বিগুণ অর্থাৎ ২০ হাজার মানুষের খাবার ব্যবস্থা করতে পারব।অবশ্য এবারই প্রথম নয়, এর আগে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের হাওড়া শহরের বেলুড় অঞ্চলে রামকৃষ্ণ মিশনের হেডকোয়ার্টার বেলুড় মঠে ২০ হাজার কেজি চাল দিয়েছিলেন বিসিসিআই সভাপতি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *