পিরামিডের সামনে ‘আপত্তিকর’ ফটোশুট, মডেল গ্রেপ্তার

মিশরে পিরামিডের সামনে ক্লিওপেট্রার সাজে ছবি তোলায় খ্যাতনামা মডেল সালমা আল-শিমিকে গ্রেপ্তার করেছে মিশরীয় পুলিশ। সেই সাথে ফটোগ্রাফারকেও গ্রেপ্তার করা হয়। অবশ্য পরে তারা জরিমানা দিয়ে ছাড়া পান। আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো গুরুত্বসহকারে এ খবর প্রচার করছে। নভেম্বরের শেষেই মিশরের এক পিরামিডের সামনে এই ছবিগুলো তুলেছিলেন ওই ফটোগ্রাফার।

প্রাচীন মিশরীয় বেশেই ক্যামেরার সামনে পোজ দেন সালমা। সেই ছবি আপলোড করেন নিজের ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলে। অল্প সময়েই দাবানলের মতো তা সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে। মিশরীয় প্রশাসনেরও নজরে পড়ে। এরপরই ফ্যাশন ফটোগ্রাফারকে পিরামিডের সম্মানহানির জন্য গ্রেপ্তার করা হয়।

মিশরের ভাবাবেগে আঘাত হানার জন্য শুধু বিতর্ক নয় ওই ফটোগ্রাফারকে গ্রেপ্তারও করেছে মিশর পুলিস। এমনকি এই ঘটনায় ফটোশুটের মডেল সালমা-আল-শাইমি কেও গ্রেপ্তার করা হয়েছে। পিরামিডের সামনে অশ্লীল ফটোশুট করার অভিযোগেই ওই মডেল এবং ফটোগ্রাফারকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

এদিন কায়রো শহরের বাইরে এক পিরামিডে। খোলামেলা স্বল্প পোশাকে ফটোশুট করছিলেন সালমা-আল-শাইমি । আর এই ছবি প্রকাশ্যে আসে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে, তারপরেই নেটিজেনদের অভিযোগ ওঠে। ঘটনা হাতের বাইরে চলে যাওয়ার আগেই ওই মডেল এবং ফটোগ্রাফারকে গ্রেপ্তার করে মিশর পুলিশ।

ফটোশুটের একটি ভিডিও-ও আপলোড করেছিলেন সালমা। শোনা গেছে গ্রেপ্তারের পর তাকে ছেড়েও দেয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, মিশরের পর্যটনের অন্যতম আকর্ষণ প্রাচীন এই পিরামিডগুলো। অন্যান্য বছর সারা বিশ্ব থেকে মানুষ আসেন এগুলো একবার দেখতে। তবে এবার করোনার কারণে পর্যটকদের সংখ্যা অনেক কম। প্রায় নেই বললেই চলে। সেই সুযোগেই এই ফটোশুট করেছিলেন প্রখ্যাত মডেল।

অবশ্য পিরামিডের সামনে আপত্তিকর ছবি তোলার জন্য গ্রেপ্তারির ঘটনা এর আগেও মিশরের ঘটেছে। সালমার এই ছবিতে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা গিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। একাংশের মতে পিরামিডের মতো পবিত্র সৌধকে অপমান করেছেন মডেল। অনেকের মতে আবার এমন কিছু অশালীন পোশাক পরেননি তিনি। তবে মতামত যাই হোক পরিস্থিতি বেগতিক।

Author: Rijvi Ahmed

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *