প্রবাসীর স্ত্রী দুধের সন্তান রেখে ‘ফেসবুক’ প্রেমিকের সঙ্গে পালালেন!

তিন বছর আগে বিথী আক্তারের সঙ্গে আবদুর রবের বিয়ে হয়। তাদের সংসারে দেড় বছরের শিশুসন্তান রয়েছে। সুখেই কাটছিল তাদের দাম্পত্য জীবন। সম্প্রতি সন্তান রেখেই ফেসবুকে পরিচয় হওয়া প্রেমিকের সঙ্গে পা’লিয়েছেন বিথী।

এছাড়া মা’মলা দিয়ে মেয়ের শ্বশুর-শাশুড়িকে হ’য়রানি করছেন বিথীর বাবা। ঘটনাটি ঘটেছে লক্ষ্মীপুরের রায়পুর পৌরসভার পূর্বলাচ গ্রামে। শনিবার সকালে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ অ’ভিযোগ করে বিচার চান বিথীর শ্বশুর আবদুল কাদের।

তিনি বলেন, ২০১৮ সালের ১৩ ফেব্রুয়ারি পারিবারিকভাবে বিথী ও আবদুর রবের বিয়ে হয়। বিয়ের দেড় বছর পর তাদের ঘরে একটি সন্তান জন্ম হয়। আমার ছেলে বিদেশে থাকে। আবদুল কাদের অ’ভিযোগ করেন, প্রবাসী স্বামীর অনুপস্থিতিতে ২০ আগস্ট রাতে ফেসবুকে পরিচয় হওয়া প্রেমিক রাকিবের সঙ্গে শা’রীরিক মে’লামেশার সময় ধরা পড়ে বিথী।

পরে ভবিষ্যতে এ ধরনের কাজ করবে না বলে রক্ষা পায় বিথী ও তার প্রেমিক। ২০ অক্টোবর আবদুর রবের পাঠানো চার লাখ টাকা, পাঁচ ভরি স্বর্ণ ও দেড় বছরের শিশুসন্তান রেখে প্রেমিক রাকিবের সঙ্গে পা’লিয়েছে বিথী।

ঘটনার দিনই রায়পুর থানায় লিখিত অ’ভিযোগ করেন আবদুল কাদের।

কিন্তু ১৯ নভেম্বর মেয়ে নি’খোঁজ হওয়ার অ’ভিযোগে আবদুল কাদেরসহ চারজনের বি’রুদ্ধে লক্ষ্মীপুর সিনিয়র জুডিশিয়াল আদালতে মা’মলা করেন বিথীর বাবা অটোচালক বাবুল মিয়া।

রায়পুর থানার ওসি আবদুল জলিল বলেন, বিথীর নি’খোঁজের বিষয়ে থানায় করা তার শ্বশুরের অভিযোগ এবং তার বাবা বাবুলের করা আদালতের মা’মলাটি তদন্তাধীন। তবে মেয়েটি নিজ ইচ্ছায় বাড়ি থেকে বের হয়ে ঢাকার কোনো একটি গার্মেন্টসে কাজ করছেন বলে জানতে পেরেছি।

Author: Rijvi Ahmed

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *