সিগারেট ধরিয়ে ঘুম, দগ্ধ হয়ে চিরঘুমে যুবক

সিগারেট ধরিয়ে ঘুমিয়ে পড়েন দীপায়ন সরকার (৩৫)। সেই সিগারেটের আগুনে প্রথমে বালিশ পোড়ে। এরপর মশারিতে আগুন ধরে। এতে দগ্ধ হন তিনি, তাঁর স্ত্রী ও মেয়ে। চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল শনিবার রাতে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে দীপায়ন মারা যান। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন তাঁর স্ত্রী পপি সরকার (৩০) ও মেয়ে দিয়া রানী সরকার (৫)।

গত শুক্রবার মধ্যরাতে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার দাপা ইদ্রাকপুর এলাকায় আগুনে দগ্ধ হন একই পরিবারের তিনজন।

দীপায়ন সরকার নেত্রকোনার খালিয়াজুরি উপজেলার ইছাপুর গ্রামের রাম গোপাল সরকারের ছেলে। সপরিবারে তিনি ফতুল্লার দাপা ইদ্রাকপুরে সরদার বাড়িতে ভাড়া থাকতেন।

ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসলাম হোসেন বলেন, শুক্রবার মধ্যরাতে দীপায়ন ঘরের ভেতরে শুয়ে সিগারেট ধরান। সিগারেটের আগুন না নিভিয়ে ঘুমিয়ে পড়েন তিনি। সেই আগুন থেকে প্রথমে বালিশ পুড়ে যায়। সেখান থেকে মশারিতে আগুন ধরে। তাঁদের তিনজনের শরীরে আগুন ধরে গেলে তাঁরা চিৎকার শুরু করেন। এ সময় স্থানীয় ব্যক্তিরা দগ্ধ তিনজনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন। এর মধ্যে দীপায়ন মারা গেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *