হতাশায় ক্রিকেট ছেড়ে প্রবাসী হচ্ছেন ক্রিকেটার

মাত্র ২৫ বছর বয়সেই দেশের ক্রিকেটকে বিদায় জানানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন পাকিস্তানি ওপেনার সামি আসলাম। ক্রিকেট ছেড়ে নাকি দেশেই থাকবেন না। রাগে-ক্ষোভে ছাড়ছেন দেশ, পাড়ি জমাচ্ছেন যুক্তরাষ্ট্রে। দেশটির সর্বাধিক জনপ্রিয় ঘরোয়া লিগ কায়েদ-ই-আজম ট্রফির চলতি আসরের চতুর্থ রাউন্ড থেকে হঠাৎ নিজের নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছেন সামি আসলাম। এ খবর প্রকাশের পরই এমনটি জানা যাচ্ছে। পাকিস্তানের খেলাবিষয়ক জনপ্রিয় গণমাধ্যম এআরওয়াই স্পোর্টস জানিয়েছে, চলতি কায়েদ-ই-আজম ট্রফির চতুর্থ রাউন্ডে খেলবেন না সামি আসলাম।

এক ই-মেইলের মাধ্যমে সামি আসলাম পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) ও তার বেলুচিস্তান টিমকে জানিয়েছেন, টুর্নামেন্টে আর অংশ নিচ্ছেন না তিনি। তিনি যুক্তরাষ্ট্রে স্থায়ী হওয়ার চেষ্টা করছেন। ২৫ বছর বয়সী প্রতিশ্রুতিশীল এ ব্যাটসম্যানের এমন সিদ্ধান্তের বিষয়ে জানা গেছে, ঘরোয়া লিগে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করেও জাতীয় দলে ডাক না পাওয়ায় হতাশ হয়েছেন সামি। পাকিস্তান ক্রিকেটে আর ক্যারিয়ার দেখছেন না তিনি। একরকম ক্ষোভ থেকে এমন সিদ্ধান্ত নিলেন তিনি।যদিও সামি আসলামের পক্ষ থেকে দেশছাড়ার পেছনে এমন কারণের কথা স্বীকার করা হয়নি।

উল্লেখ্য, জাতীয় দলের খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে সামি আসলামের। ২০১৫ থেকে ২০১৭ সালের মধ্যে পাকিস্তানের সাদা জার্সিতে ১৩টি টেস্ট খেলেছেন তিনি। খেলেছেন ৪টি ওয়ানডেও। টেস্টে ৩১-এর ওপর গড় তাকে বলতে গেলে প্রথম পছন্দের ওপেনারই বানিয়ে দিচ্ছিল। কিন্তু হঠাৎই ছিটকে পড়েন।

শুধু জাতীয় দলে ফেরা নিয়ে নয়; পাকিস্তানের ঘরোয়া লিগেও বেশ ঝামেলায় জড়িয়েছেন সামি আসলাম।ঘরোয়া ক্রিকেটে রানের বন্যা বইয়েও কোচের মন জয় করতে পারেননি তিনি। গত বছর পাকিস্তানের কায়েদ-ই-আজম ট্রফিতে সাউদার্ন পাঞ্জাবের অধিনায়কত্ব করেন। চার সেঞ্চুরি আর ৭৮ গড়ে ৮৬৪ রান করে সেই টুর্নামেন্টে চতুর্থ সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক হন।

আর সেই মৌসুমেই তাকে নেতৃত্ব থেকে সরিয়ে দেয় দলটির হেড কোচ আবদুল রেহমান। যে কারণে দলবদলে এবার বেলুচিস্তানে নাম লেখান সামি। এত কিছুর পরও জাতীয় দলে ফেরার স্বপ্নে বিভোর ছিলেন সামি। আসন্ন নিউজিল্যান্ড সফরে ৩৫ জনের দলেও জায়গা না পেয়ে তার সেই স্বপ্ন ভেঙে যায়।দলের ওপেনিংয়ে আবিদ আলি আর শান মাসুদের জায়গা হলেও ব্যাকআপ অপশন হিসেবেও বেছে নেয়া হয়নি তাকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *