সাকিবের স্ত্রীর ব্যতিক্রমী প্রতিবাদ

ম্যাচ ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব পেয়ে তা গোপন করায় সাকিব আল হাসানকে এক বছর নিষিদ্ধ করে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল। গত ২৯ অক্টোবর তার সেই নিষেধাজ্ঞা শেষ হয়। এরপর চলতি মাসে দেশে ফেরেন তিনি।

দেশে ফেরার কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে গুলশানে একটি সুপারশপ উদ্বোধন, বেনাপোলে ভক্তের ফোন ভেঙে যাওয়া ও কলকাতা পূজামণ্ডপ প্রসঙ্গসহ নানা কারণে আলোচনা-সমালোচনার মুখে পড়েন সাকিব।

বিশেষ করে পূজার বিষয়টি নিয়ে এক সমর্থক সাকিবকে হত্যার হুমকি দেন। এরপর গত সোমবার (১৬ নভেম্বর) সন্ধ্যায় নিজের ভুল স্বীকার করে ফেসুবক লাইভে কলকাতার ঘটনার জন্য দেশবাসীর কাছে ক্ষমা চান সাকিব।

তার ঠিক একদিন পর মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নীরব প্রতিবাদ করেন সাকিবপত্নী উম্মে আহমেদ শিশির। তিনি নিজের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে একটি ছবি পোস্ট করেছেন।

যাতে দেখা যাচ্ছে, একটি জাহাজ সমুদ্রে ভাসছে। কিন্তু একটি মোবাইল ফোন বাঁকা করে ধরে এমনভাবে জাহাজটির ছবি নেওয়া হয়েছে, যাতে মনে হচ্ছে সেটি পানিতে ডুবে যাচ্ছে! ক্যাপশনে কিছুই লিখেননি শিশির। শুধু একটি হাসির ইমোজি দিয়েছেন।

সেই পোস্টে সাকিবপত্নী কোনো ক্যাপশন না লিখলেও হয়তো তিনি বোঝাতে চেয়েছেন- বাঁকা করে দেখলে সবকিছুর মধ্যেই ত্রুটি পাওয়া যাবে।

সাকিবপত্নীর এমন পোস্টে তৌহিদুল ইসলাম নামে একজন মন্তব্য করেছেন-ভাবি সেই হইছে।

মুরাদ বিন মোর্শেদ নামে এক ফেসবুক ব্যবহারকারী লেখেন- মাথাওয়ালা পোলা, মাথাছাড়া মাইয়া বিয়ে করবে না কখনও।

আদনান হাবিব নামে একজন লিখেছেন- এ জন্যই আপনি বিশ্বেসেরার সহধর্মিণী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *