যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৬৭ হাজার, আক্রান্ত সাড়ে ১১ লাখ

মহামারি করোনায় যুক্তরাষ্ট্রে আশঙ্কাজনক হারে বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা। শনিবার পর্যন্ত দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১১ লাখ ৬০ হাজার ৭৭৪ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৬৭ হাজার ৪৪৪ জনের। এছাড়া করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন এক লাখ ৬১ হাজার ১১২ জন।

চীনে প্রাদুর্ভাব শুরু হলেও করোনায় বিপর্যস্ত হওয়ার শীর্ষে এখন যুক্তরাষ্ট্র। আক্রান্ত ও মৃত্যুর দিক দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের ধারেকাছেও নেই কোনো দেশ। যুক্তরাষ্ট্রের শুধু নিউইয়র্কেই মৃত্যু হয়েছে ২৪ হাজার ৩৬৮ জনের। এই প্রদেশে আক্রান্তের সংখ্যা ৩ লাখ ১৯ হাজার ২১৩ জন। এরপরই রয়েছে নিউ জার্সি। সেখানে মৃত্যু হয়েছে ৭৭৪২ জনের, আক্রান্ত এক লাখ ২৩ হাজার ৭১৭ জন।

এই অবস্থায় মার্কিন প্রেসিডেন্ড ডোনাল্ড ট্রাম্প দেশটির অর্থনীতি পুনরায় চালু করার ঘোষণা দিয়েছেন। এ নিয়ে তোড়জোর চালাচ্ছেন তিনি। এরমধ্যে আলাবামা, ইডাহোর মতো রাজ্যগুলো লকডাউন প্রত্যাহার করছে। স্টে-অ্যাট-হোম অর্ডার বাতিল করেছে ২ কোটি ৯০ লাখ বাসিন্দার রাজ্য টেক্সাসও।

জরুরি প্রয়োজনে ‘রেমডেসিভির’ ওষুধ ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছে ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন। শুক্রবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এ কথা জানান। মহামারি ইবোলার জন্য তৈরি ওষুধ রেমডেসিভির করোনা রোগীদের প্রয়োগ নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরেই আশাব্যঞ্জক কথা শোনা যাচ্ছিল।

লকডাউন প্রত্যাহার করতে হলে পরীক্ষার সংখ্যা বাড়াতে হবে মন্তব্য করে ট্রাম্পের বদ নজরে পড়েছেন শীর্ষ সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ অ্যান্থনি ফাউসি। ট্রাম্পের বক্তব্য, যথেষ্ট পরিমাণে পরীক্ষা করা হচ্ছে। এর চেয়ে বেশি করার প্রয়োজন নেই। সামনে নির্বাচন তাই ব্যবসা-বাণিজ্য চালুর জন্য মরিয়া ট্রাম্প।

এদিকে করোনা মোকাবিলা পরিস্থিতি নিয়ে অ্যান্থনি ফাউসিকে তলব করেছে মার্কিন কংগ্রেস। কিন্তু ট্রাম্পের নির্দেশে হোয়াইট হাউস থেকে তার কংগ্রেসে হাজির হওয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। হোয়াইট হাউস বলছে, এই প্রক্রিয়ায় সাথে জড়িত ব্যক্তিদের সাক্ষ্যদান করাটা ‘প্রতিক্রিয়াশীল’ হবে।

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *