করোনায় মৃত সাংবাদিকের স্ত্রী-ছেলেও আক্রান্ত

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া সাংবাদিক হুমায়ুন কবির খোকনের স্ত্রী ও ছেলেরও করোনা শনাক্ত হয়েছে। হুমায়ুন কবির মারা যাওয়ার পর তারা হোম কোয়ারেন্টিনে ছিলেন।

হুমায়ুন কবির খোকনের স্ত্রী বলেন, শুক্রবার (১ মে) রাতে রিজেন্ট হাসপাতাল থেকে জানানো হয়, আমাদের দু’জনের পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে। এতদিন বাসায় থাকলেও তাই এখন হাসপাতালে যাচ্ছি।

তিনি আরও বলেন, খোকন যেদিন মারা গেলো, সেদিন সেখানেই তাদের নমুনা সংগ্রহ করা হয় এবং আজ হাসপাতাল থেকে রিপোর্ট জানানো হলো।

এদিকে শুক্রবার দিবাগত রাত ১২টায় রিজেন্ট হাসপাতালের কন্ট্রোল রুম ইনচার্জ ও জন সংযোগ কর্মকর্তা তারিক শিবলীও বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেন।

শিবলী বলেন, ‘আমরাই তার স্ত্রী ও ছেলের করোনা টেস্ট করিয়েছিলাম। টেস্টে তাদের দুই জনেরই ফলাফল পজিটিভ এসেছে।’

গত ২৮ এপ্রিল সকালে বাসায় বসে কাজ করার সময় হুমায়ুন কবিরের শ্বাসকষ্ট ও মাথাব্যথা দেখা দেয়। এরপর শারীরিক অবস্থা অবনতির দিকে গেলে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির অ্যাম্বুলেন্সে করে রাত ৯টার দিকে তাকে রিজেন্ট হাসপাতালে নেয়া হয়।

হাসপাতালে ভর্তির সময়ই তার অবস্থা আশঙ্কাজনক ছিল। ডাক্তাররা চেষ্টা করলেও ঘণ্টাখানেকের মধ্যে তার মৃত্যু হয়। পরবর্তী সময়ে তার নমুনা সংগ্রহ করা হলে তিনি করোনায় আক্রান্ত ছিলেন বলে জানা যায়।

হুমায়ুন কবির খোকন ছিলেন দৈনিক সময়ের আলো পত্রিকার নগর সম্পাদক। তার বাড়ি কুমিল্লার মুরাদনগরের রাজাচাপিতলা গ্রামে। সেখানেই বাবার কবরের পাশে তারা দাফন সম্পন্ন হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *