বিদেশ থেকে ফিরেই ক্লাস এইটের মেয়েকে বিয়ে করে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা দিলো প্রবাসী

কিছুদিন হলো সৌদি আরব থেকে ফিরেছেন আসাদুল ইসলাম। বাড়িতে আসার পর পাত্রী খুঁজতে থাকেন। একপর্যায়ে অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রীকে বিয়ে করেন তিনি। তবে বাল্যবিয়ের অপরাধে আসাদুল ইসলামকে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।
মঙ্গলবার রাতে টাঙ্গাইলের বাসাইল উপজেলার সুন্যা পশ্চিমপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আসাদুল জেলার সখীপুর উপজেলার বেড়বাড়ি খন্দকারপাড়া গ্রামের ফন্নু মিয়ার ছেলে।

স্থানীয়রা জানায়, রোববার আসাদুল ইসলামের সঙ্গে বাসাইল উপজেলার কাউলজানী ইউপির সুন্যা পশ্চিমপাড়া গ্রামের সবুর মিয়ার মেয়ে সামরিয়া আক্তারের বিয়ে হয়। পরদিন বৌভাত শেষে স্ত্রীকে নিয়ে শ্বশুরবাড়িতে আসেন আসাদুল। গোপন সংবাদে মঙ্গলবার বিকেলে বাসাইলের ইউএনও শামছুন নাহার স্বপ্না ওই বাড়িতে হাজির হন। এ সময় আসাদুলকে নিজ কার্যালয়ে নিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করেন শামছুন নাহার।

ইউএনও শামছুন নাহার বলেন, স্কুলছাত্রীর বিয়ে হয়েছে- এমন সংবাদে ওই বাড়িতে অভিযান চালানো হয়। পরে ঘটনার সত্যতা মিললে বরকে আটক করা হয়। এরপর বাল্যবিয়ের অপরাধে তাকে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

আরো পড়ুন: মৃত্যুর আগে চিরকুটে লিখে গেলেন ব্যাংক অ্যাকাউন্ট ও পাওনাদারের টাকার পরিমাণ

সম্প্রতি বাসাইল উপজেলার ফুলকি পশ্চিমপাড়া গ্রামের আব্দুর রশিদের প্রবাস ফেরত ৩৪ বছর বয়সী ছেলে রাজিব খানের সঙ্গে বিয়ে হয় নুর নাহার নামে ১৪ বছরের কিশোরীর। কিন্তু বিয়ের ৩৪ দিনের মাথায় অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে সে মারা যায়। এ ঘটনার পরও উপজেলায় বাল্যবিয়ের ঘটনায় হতবাক সচেতন মহল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *