বাড়ি থেকে পালিয়ে বিয়ে করতে যাওয়ার সময় ট্রাক চাপায় জীবন গেল প্রেমিক প্রেমিকার

টাঙ্গাইল জেলার নাগরপুর উপজেলায় ট্রাকচাপায় তিন মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। নিহত দুজনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। তারা রাতের আঁধারে বাড়ি থেকে পালিয়ে বিয়ে করতে যাচ্ছিলেন বলে জানা গেছে। তাদের সহযোগিতা করতে মোটরসাইকেলে আরেক বন্ধু ছিল। তিনিও দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন।

বুধবার (১১ নভেম্বর) সকালে টাঙ্গাইল-আরিচা আঞ্চলিক মহাসড়কের নাগরপুর উপজেলার দাসপাড়া নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এসময় তিনজন ঘটনাস্থলেই নিহত হয়। নিহতরা হলো- সদর উপজেলার কাকমারা এলাকার আবদুল মান্নানের মেয়ে মমতা হিয়া (১৫), দেলদুয়ার উপজেলার জাঙ্গালিয়া গ্রামের আবদুল বারেকের ছেলে শুভ আক্তার সানি (১৮) এবং শুভর বন্ধু ও করটিয়া বাইপাস এলাকার মোস্তফার ছেলে বাপ্পি (২২)। নিহত মমতা টাঙ্গাইলের বিবেকানন্দ উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার্থী।

নাগরপুর থানার ওসি (তদন্ত) বাহারুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, মোটরসাইকেলে নাগরপুরের ডুবুরিয়া গ্রামের নানাবাড়ি থেকে পালিয়ে দুই কিশোর-কিশোরী টাঙ্গাইলের দিকে যাচ্ছিল। এ সময় সহযোগিতা করতে তাদের এক বন্ধুও মোটরসাইকেলে ছিল। একপর্যায়ে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি ট্রাক ওই মোটরসাইকেলকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই তিনজন নিহত হয়। পরে পুলিশ সংবাদ পেয়ে নিহতদের লাশ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় ঘাতক ট্রাকটি আটক করা হলেও ঘাতক চালক পালিয়ে গেছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে নাগরপুর থানার ওসি আলম চাঁদ জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। লাশ তিনটি উদ্ধার করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *