পোশাক নিয়ে সমালোচনার কবলে নুসরাত ফারিয়া

ক’দিন আগেই ফরাসি পণ্য বয়কট করে আলোচনায় এসেছিলেন নুসরাত ফারিয়া। এবার আলোচনায় এলেন ব্যায়ামের পোশাকে। সোমবার নুসরাত ফারিয়া নিজের ফেসবুক পেইজে একটি ছবি পোস্ট করেন। সেই ছবিতে আসে ব্যাপক প্রতিক্রিয়া। ৩৪ হাজার লাইক ও নয় হাজার লাভ প্রতিক্রিয়ার বিপরীতে হাসির প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন ১৭ হাজার ফেসবুক ব্যবহারকারী।

ছবিতে নুসরাত ফারিয়াকে সমালোচনার তীরে বিদ্ধ করা হয়েছে। সোহাগি ইসরাত নামের এক নারী ফেসবুক ব্যবহারকারী নুসরাত ফারিয়ার এই পোশাকের সমালোচনা করে লিখেছেন, এমন পোশাক পরার দরকার ছিল না। মন্তব্যকারীরা অধিকাংশই নুসরাত ফারিয়ার পোশাক ট্রোল ও অশালীন শব্দ ব্যবহার করেছেন। বিশেষ করে নারী ফেসবুক ব্যবহারকারীরাও তাকে নিয়ে সমালোচনা করতে ছাড়েননি।

গত ৩১ অক্টোবর ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে ফরাসি পণ্য বর্জনের আহ্বান জানিয়েছিলেন ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় নায়িকা নুসরাত ফারিয়া মাজহার। তিনি জানান, তিনি ফরাসি ব্র্যান্ডের একটি দামি ঘড়িও ফেলে দিয়েছেন। নুসরাত ফারিয়ার এ স্ট্যাটাসের পর অনেক প্রশংসিত হয়েছেন তিনি। কেউ কেউ অবশ্য সমালোচনা করতেও ছাড়েননি।

সমালোচনার জবাব দিয়ে নুসরাত ফারিয়া পরে আরও একটি স্ট্যাটাস দেন। সেখানে তিনি লিখেছেন, ‘কেন একটি সহজ বিষয়কে এতটা জটিল করে তুলতে হবে? যদি কারো কথা আমার অনুভূতিতে আঘাত করে তবে কি সেটা জানানোর আমার অধিকার নাই? নাকি অভিনেত্রী বলে আমার কোনো মতামতই থাকতে পারে না? ‘আমার ধর্ম আমার বিশ্বাস এবং আমার সহ্যসীমার বাইরে চলে যায় এমন কিছু নিয়ে কথা বলার ২০০ ভাগ অধিকার আমার আছে।’

আরজে হিসেবে কাজের মধ্য দিয়ে গণমাধ্যমে আগমন নুসরাত ফারিয়ার। আরটিভির ‘ঠিক বলছেন তো‘ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে প্রথম টিভি পর্দায় উপস্থাপনায় আসেন নুসরাত ফারিয়া। ২০১২ সালে এনটিভির ‘থার্টিফাস্ট ধামাকা কক্সবাজার’ অনুষ্ঠানটি ফারিয়া সবার নজর কেড়ে নেন। ২০১৩ সালের জানুয়ারিতে বলিউড প্লেব্যাক শিল্পী সুনিধি চৌহানের ‘সুনিধি লাইভ কনসার্ট’ শিরোনামের অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করে দারুণ প্রশংসিত হন তিনি।

তাঁর উপস্থাপিত বিভিন্ন জনপ্রিয় অনুষ্ঠানের মধ্যে রয়েছে আরটিভির ‘লেট নাইট কফি উইথ নুসরাত ফারিয়া’, এসএ টিভির ‘ক্লিয়ার এসএ লাইভ স্টুডিও’, এটিএন বাংলার ‘ট্রেন্ড’, জিটিভির ‘লাক্স ওয়ার্ল্ড অব গ্ল্যামার’ এবং এনটিভির ‘স্টাইল অ্যান্ড ট্রেন্ড’, রেডিও ফুর্তিতে ‘নাইট শিফট উইথ ফারিয়া’ ইত্যাদি। এছাড়া নুসরাত ফারিয়া ‘ডোর’ নামে ফ্যাশন হাউসের ব্র্যান্ড মডেল এবং ফেয়ার অ্যান্ড লাভলি, সিম্ফনি, সিটিসেল রিচার্জের বিজ্ঞাপনচিত্রে মডেল হয়ে কাজ করেন।

বাংলাদেশ-ভারত যৌথ প্রযোজনার চলচ্চিত্র প্রেমী ও প্রেমীর অভিনেত্রী হিসেবে ঘোষণা করেন। তবে প্রেমী ও প্রেমীই নুসরাত ফারিয়ার প্রথম চলচ্চিত্র নয়। ২০১৪ সালে রেদওয়ান রনি পরিচালিত মরীচিকা চলচ্চিত্রে নায়িকা হিসেবে অভিনয়ের জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়েছিলেন নুসরাত ফারিয়া। এই মুহূর্তে দুই বাংলার ব্যস্ততম ও জনপ্রিয় নায়িকা নুসরাত ফারিয়া।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *