অপূর্ব হাসপাতালে, সারা দিন না খেয়ে ভারতীয় মেয়ে ভক্ত

করোনায় আক্রান্ত হয়ে ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন জিয়াউল ফারুক অপূর্ব। প্লাজমা প্রদানের পর শারীরিক অবস্থার উন্নতি হওয়ায় আইসিইউ (নিবিড় পর্যবেক্ষণ কক্ষ) থেকে তাঁকে কেবিনে স্থানান্তর করা হয়েছে। প্রিয় অভিনেতার অসুস্থতার খবরে দুই বাংলার ভক্তদের মধ্যে দেখা দিয়েছে উৎকণ্ঠা।
ফেসবুকে অপূর্বর ভারতীয় ফ্যান ক্লাবের এক সদস্যের পোস্ট পড়ে চমকে যাবেন যে কেউ। দেবশ্রী গুহ নামের এই অপূর্বভক্ত প্রিয় তারকার সুস্থতা কামনায় শনিবার উপবাস দিয়েছেন। সেদিন সন্ধ্যায় ১৬ সেকেন্ডের একটি ভিডিও শেয়ার করেন অপূর্ব। হাসপাতালের বেডে অপূর্ব, তাঁর হাতে স্যালাইনের সিরিঞ্জ পুশ করা। শুধু হাতের নড়াচড়াই দেখা যাচ্ছে সেখানে। ভিডিওটি শেয়ার দিয়ে আবেগঘন একটি পোস্ট দেন দেবশ্রী। এক জায়গায় লেখেন, ‘…আজ উপোস করে পূজা দিয়েছিলাম তোমার জন্য। সত্যিই ভাবিনি তার ফল এভাবে পাব। চোখের জল বাঁধ মানেনি আজ।’

রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্রী দেবশ্রী। প্রায় তিন বছর ধরে অপূর্বর অন্ধভক্ত তিনি।

করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি জনপ্রিয় অভিনেতা জিয়াউল ফারুক অপূর্ব। রাজধানীর শ্যামলীর বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তিনি। তাঁর শারীরিক অবস্থা খুবই করুণ থাকায় বাড়ছিল দুশ্চিন্তা। অবশেষে আজ রবিবার খোঁজ নিতে গিয়ে জানা গেল, সুস্থ হয়ে উঠছেন এই অভিনেতা। তাঁর শারীরিক অবস্থার উন্নতি হচ্ছে।

প্লাজমা দেওয়া হয়েছে তাঁর শরীরে। এরপর তাঁর শারীরিক অবস্থার খানিকটা অবনতি হয়। তখন দুশ্চিন্তা ছড়িয়ে পড়ে নাটকপাড়া ও অপূর্বর ঘনিষ্ঠজন-ভক্তমহলে। ধীরে ধীরে চিকিৎসায় সাড়া দিচ্ছেন তিনি। অনেকটাই সুস্থ হয়ে উঠেছেন অপূর্ব।

অপূর্বর এক বন্ধু নির্মাতা জানিয়েছেন, ‘প্লাজমা দেওয়ার পর কিছুটা ভালো আছেন অপূর্ব। তবে হিচকির সমস্যা এখনো পুরোপুরি সারেনি। আরো কিছুদিন তাঁকে হাসপাতালে থাকতে হবে।’

গত ৩ নভেম্বর রাতে জিয়াউল ফারুক অপূর্বর শরীরের অবনতি ঘটলে হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। অবস্থার অবনতি হলে আইসিইউতে নেওয়া হয় তাঁকে। তারও এক দিন আগে করোনা পজিটিভ ফল হাতে পান এই অভিনেতা। গত ১ নভেম্বর থেকে জ্বরে ভুগছিলেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *