বৈধ কাগজপত্র ছাড়াই বাংলাদেশী-ভারতীয়সহ ১ কোটি মানুষকে নাগরিকত্ব দেবে বাইডেন সরকার

কোনও বৈধ কাগজপত্র ছাড়াই বহু দিন ধরে আমেরিকায় রয়েছেন এমন অন্তত সওয়া ১ কোটি মানুষকে সে দেশের স্থায়ী নাগরিকত্ব দেওয়ার কথা ভাবছেন ভাবী প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

এঁদের মধ্যে রয়েছেন কয়েক লক্ষ ভারতীয় ও বাংলাদেশী। আমেরিকায় বহু দিন ধরে থাকা এই সব মানুষকে সে দেশের স্থায়ী নাগরিকত্ব দেওয়ার রোডম্যাপ তৈরি করবেন ভাবী প্রেসিডেন্ট।

সদ্যসমাপ্ত প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট প্রার্থী বাইডেনের প্রচারে যে নীতিপত্র (‘পলিসি ডকুমেন্ট’) ঘোষণা করা হয়, তাতেই এ কথা জানানো হয়েছে। অঙ্গীকার করা হয়েছে প্রতি বছর বিভিন্ন দেশ থেকে আসা অন্তত ৯৫ হাজার শরণার্থীকে আশ্রয় দেওয়া হবে আমেরিকায়। বাইডেনের নির্বাচনী প্রচারের ওই নীতিপত্রে বলা হয়েছে, ‘‘জীবিকার জন্য যাতে হাজার হাজার মানুষের পরিবার না ভেঙে যায়,

তাঁদের যাতে দিনের পর দিন পরিবার থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে না থাকতে হয় সে কথা মাথায় রেখেই অভিবাসন আইনের আমূল সংস্কার চান বাইডেন। ক্ষমতাসীন হওয়ার পরেই তিনি এ ব্যাপারে কংগ্রেসে আলোচনা শুরু করবেন। জরুরি ভিত্তিতে। তাতে একটি রোডম্যাপ বানানোর পথে হাঁটতে চান বাইডেন। যাতে কোনও বৈধ কাগজপত্র ছাড়াই বহু দিন ধরে আমেরিকায় রয়েছেন এমন অন্তত সওয়া ১ কোটি মানুষকে সে দেশের স্থায়ী নাগরিকত্ব দেওয়া সম্ভব হয়। এঁদের মধ্যে রয়েছেন অন্তত ৫ লক্ষ ভারতীয়ও।’’

নীতিপত্রে এও জানানো হয়েছে এ ক্ষেত্রে পারিবারিক ভাবে অভিবাসনের বিষয়টিকেই সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেওয়া হবে। মাথায় রাখা হবে যাতে কোনও পরিবার না বিপন্ন, বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। এমনকী প্রতি বছর যাতে বিভিন্ন দেশ থেকে আসা অন্তত ৯৫ হাজার মানুষ শরণার্থী হিসাবে আশ্রয় পেতে পারেন আমেরিকায়,

সেই বিষয়টিও সুনিশ্চিত করতে চান বাইডেন, জানানো হয়েছে ওই নীতিপত্রে। ধাপে ধাপে এই সংখ্যাটা তিনি বা়ড়াতেও চান। তাঁর লক্ষ্য, আগামী দিনে বছরে বিভিন্ন দেশ থেকে আসা অন্তত ১ লক্ষ ২৫ হাজার মানুষকে যাতে শরণার্থী হিসাবে আশ্রয় দেওয়া সম্ভব হয় আমেরিকায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *