আইসিইউ থেকে অভিনেতা অপূর্বের সর্বশেষ অবস্থা, লাগবে প্লাজমা

টেলিভিশন নাটকের জনপ্রিয় অভিনয়শিল্পী অপূর্বর বুকের সিটি স্ক্যান প্রতিবেদন হাতে পেয়েছেন চিকিৎসকেরা। তাতে দেখা গেছে, করোনায় তাঁর ফুসফুসের ৩৫ শতাংশ আক্রান্ত হয়েছে। চিকিৎসকের বরাত দিয়ে পরিচালক মিজানুর রহমান আরিয়ান জানিয়েছেন, তিনি এই অভিনয়শিল্পীর চিকিৎসার সার্বিক দেখভাল করছেন।

এদিকে করোনায় আক্রান্ত অপূর্বকে শুরুতে হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) রাখা হলেও গতকাল বুধবার বিকেলে তাঁকে কেবিনে নেওয়া হয়। তাঁর শরীর এখনো দুর্বল। তিন দিন পর ল্যাব রিপোর্ট হাতে পেলে বিস্তারিত জানা যাবে বলে জানালেন আরিয়ান।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে প্রথম আলোকে আরিয়ান বলেন, ‘অপূর্ব ভাইয়ের শারীরিক অবস্থা আবার খারাপ হয়েছে। চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, প্লাজমা লাগবে।’

টানা তিন দিন কাঁপুনিসহ জ্বর ও শারীরিকভাবে দুর্বল হয়ে পড়ায় চিকিৎসকের পরামর্শে অপূর্বর কোভিড-১৯ পরীক্ষা করানো হয়। ফল হাতে পেলে জানা যায়, তিনি কোভিড-১৯ পজিটিভ। গত মঙ্গলবার তাঁর শারীরিক অবস্থা বেশি খারাপ হলে তাঁকে শ্যামলীর একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

সে সময় তাঁর খবর নেওয়া পরিচালক শিহাব শাহীন জানান, গত মঙ্গলবার রাতে অপূর্বর কয়েকটি টেস্ট করা হয়। ব্লাড টেস্টের রেজাল্ট ভালো আসেনি। এ ছাড়া আর কোনো সমস্যা ধরা পড়েনি। কোনো খাবার খেতে পারছিলেন না। খেলে বমি হয়ে যাচ্ছিল। শারীরিকভাবে তিনি খুবই দুর্বল ছিলেন। হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার আগে অপূর্ব শিহাব শাহীনের নির্মিতব্য একটি ওয়েবভিত্তিক সিনেমায় এক দিনের শুটিং করেছিলেন।

এর আগে একটি শুটিং স্পটে দুজন কুশলী করোনায় আক্রান্ত হওয়ায় কোয়ারেন্টিনে ছিলেন অপূর্বসহ ওই ইউনিটের সবাই। পরে দুবার করোনা পরীক্ষার পর নেগেটিভ ফল নিয়ে শুটিংয়ে ফিরেছিলেন অপূর্ব। সে সময় অপূর্ব বলেন, ‘বাস্তবতা মেনে নিয়েই চলতে হবে। কাজ করতে হবে। তবে এবার আরও সতর্ক হয়ে কাজ শুরু করলাম।’ নানা রকম সতর্কতা সত্ত্বেও করোনায় আক্রান্ত হলেন অপূর্ব। তাঁর সুস্থতার জন্য সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন তাঁর সহকর্মীরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *