মানব শরীরের কোন অঙ্গটি জন্মের পর আসে আবার মৃ’ত্যুর আগে চলে যায়?

আম’রা স’বাই কম বেশি জানি। কিন্তু কেউ দা’বি করতে পা’রি না যে ‘আমি স’ব জানি’। কারণ স’ব কিছু জা’নাটা মোটেও স’ম্ভব নয়। আর তার থেকেও বড় ক’থা বুদ্ধি।

বুদ্ধিতেও আম’রা কেউ দা’বি করতে পারবো না যে ‘আমি সেরা’। কারণ এমন অনেক স’ময় অনেক ব্যা’পার আসে যেখানে তাবড় তাবড় বুদ্ধিমা’নকেও হার মা’নতে হয়। তেমনই আজ আ’পনাদের এমনই কিছু প্রশ্নের ক’থা বলবো যা শুনলে আ’পনিও উত্তর দিতে হিমসিম খেয়ে যাবেন। আর যখন তার উত্তর শুনবেন তখন মনে হবে যে এত স’হজ ছিল প্রশ্নটা।

আম’রা যারা চাকরির প’রীক্ষা দিই, তারা এই ব্যপারটার সা’থে স’বাই কম বেশি অবগত। চাকরির প’রীক্ষায় যেমন অংক, ইংরা’জি, জেনারেল নলেজ থাকে তেমনই থাকে জেনারেল ই’ন্টেলিজেন্সি ব’লে একটি পেপার। উপ’রের তিনটি মুখস্থ ও ফর্মুলা দিয়ে করা গেলেও এই টপিকটার কোন ফর্মুলা নেই।

যার মস্তিষ্ক যত তীক্ষ্ণ সেই দিতে পারবে এইস’ব প্রশ্নের উত্তর। আর এই প্রশ্নগুলো যেভাবে দেওয়া হয় তাতে আ’পনি যেভাবে ভাববেন ঠিক তার উলটো উত্তর হবে যা আ’পনি ভাবতেও পারবেন না।

বড় বড় প’রীক্ষায় কিংবা ই’ন্টারভিউতে এমন এমন ই’ন্টেলিজেন্সির প্রশ্ন আসে যা দে’খে অবাক তো হতেই হয় তাছা’ড়াও প্রশ্নের ধরন দে’খে অশ্লীল মনে হয়। কিন্তু উত্তর দে’খে নিজেকে অ’প’রাধী মনে হয়, তাছা’ড়াও মনে হয় “ইশশ আমি কি বোকা”।

আসুন তবে দে’খে নিই সেইস’ব কিছু প্রশ্ন ঃ- প্রশ্ন ১। ভারতের ক্ষেত্রফলের দিক থেকে স’ব থেকে বড় রা’জ্য কি ?উত্তরঃ আম’রা ছোটবেলা থেকে পড়ে এসছি আয়তনের দিক থেকে স’বচেয়ে বড় রা’জ্য। কিন্তু এটা একটু ঘুরিয়ে দিয়েছে। যারা বুদ্ধিমা’ন, মুখস্থ না করে বুঝে পড়ে তারাই পারবে। উত্তর রা’জস্থান।

প্রশ্ন ২। মে’য়েদের শ’রীরের কোন জিনিস আম’রা খেতে পা’রি ?উত্তরঃ প্রশ্ন শুনে প্রথমে আমাদের মনে অশ্লীল ভাবনা আসলেও এটির উত্তর শুনলে আ’পনি তাজ্জব তো হবেনই, তাছা’ড়া বোকা বেনে যাবেন। এই প্রশ্নের উত্তর হল ঢ্যাঁড়শ। যা ইংরা’জিতে আম’রা lady finger ব’লে জানি।এর প’র যে প্রশ্নটা করতে যাচ্ছি তার জ’ন্য আ’পনাকে নিজের একটু বুদ্ধি খাটাতে হবে। কারণ এই প্রশ্নটি এমনভাবেই ঘুরিয়ে করা হয়েছে যে, উত্তর দেওয়া অতটা স’হজ নয়। আসুন দে’খে নেওয়া যাক।

প্রশ্ন ৩। শ’রীরের কোন অ’ঙ্গ জ’ন্মের প’র আসে আবার মৃ’ত্যুর আ’গে চ’লে যায় ?উত্তরঃ প্রশ্ন শুনে অবাক হলেও উত্তর কিন্তু জলের মতো সোজা। এই প্রশ্নের উত্তর শুনল আ’পনি আর নিজেকে বুদ্ধিমা’ন ভাবতে সাহস পাবেন না। উত্তরটি হল দাঁত, যা জ’ন্মের প্রা’য় ৬ মা’স প’র থেকে উঠতে শুরু করে এবং বৃদ্ধ হলে তা প’রে যায়।অবাক করা এই প্রশ্নগু’লি সত্যিই বুদ্ধির প’রীক্ষার জ’ন্য বেশ কঠিন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *