ব্যাগে কাপড় ও ওষুধ দিয়ে বৃদ্ধকে রাস্তায় ফেলে গেল স্বজনরা

যশোরের ফুটপাতে অজ্ঞাতপরিচয় এক বৃদ্ধকে ফেলে রেখে গেছেন স্বজনরা। শনিবার রাতে এ ঘটনা ঘটে। পরে স্থানীয় সংবাদকর্মীদের সহযোগিতায় পুলিশ ওই বৃদ্ধকে (৭০) যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করেছেন। কিন্তু এখন পর্যন্ত তার স্বজনদের কোনো সন্ধান পাওয়া যায়নি।

যশোর কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি মনিরুজ্জামান জানান, শনিবার রাতে জিলা স্কুল ও সার্কিট হাউসের সামনের যাত্রীছাউনিতে এক বৃদ্ধকে পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয় সংবাদকর্মীরা পুলিশকে বিষয়টি জানান। বৃদ্ধ তার নাম-পরিচয় বা ঠিকানা বলতে পারছেন না। পরে পুলিশ রাতে তাকে নিয়ে যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করেছে। পরিবারের লোকজন তাকে ওই যাত্রীছাউনিতে রেখে গেছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ওই এলাকার কয়েকজন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী ও পথচারী জানান, ব্যস্ত সড়কের পাশে যাত্রীছাউনিতে কারা কখন ওই বৃদ্ধকে রেখে গেছে তা কেউ খেয়াল করেনি। তবে বৃদ্ধকে দেখে ‘ভাল ঘরের’ মনে হয়েছে। তার সঙ্গে থাকা ব্যাগে পরিষ্কার লুঙ্গি, শুকনো খাবার, ওষুধপত্র রয়েছে। একটি পাটি বিছিয়ে তাকে বসিয়ে রাখা হয়েছে। কিন্তু তিনি কথা বলতে পারছেন না। পরে পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায়।

যশোর কোতোয়ালি মডেল থানার এসআই মফিজ, চাঁচড়া ফাঁড়ির এএসআই সেলিম, স্থানীয় সংবাদকর্মী রতন সরকার, ইজিবাইক চালক টিটো ও পথচারী শহিদের সহযোগিতায় তাকে নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া যশোর কোতোয়ালি মডেল থানার এসআই মফিজ জানান, বৃদ্ধকে নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে তিনি কথা বলতে না পারায় তার ঠিকানা উদ্ধার সম্ভব হয়নি। পুলিশ তার স্বজনদের খুঁজে বের করার চেষ্টা করছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *