ইসলামাবাদে হিন্দু মন্দির নির্মাণে শীর্ষ ইসলামী সংস্থার অনুমোদন

পাকিস্তানের ইসলামাবাদে নতুন একটি হিন্দু মন্দির নির্মাণের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। আলেমদের নিয়ে গঠিত পাকিস্তান সরকারের ইসলাম বিষয়ক সর্বোচ্চ সংস্থা ‘কাউন্সিল অব ইসলামিক আইডিওলজি’ এ অনুমোদন দিয়েছে।

বুধবার (২৮ অক্টোবর) সংস্থাটি জানায়, রাজধানীতে নতুন মন্দির স্থাপনে তাদের কোনও আপত্তি নেই। সংস্থাটি আরও জানায়, ইসলামে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের উপাসনালয় তৈরির অনুমোদন রয়েছে‍।

ধর্মীয় ইস্যুতে পাকিস্তান সরকারকে নানা পরামর্শ দিয়ে থাকে কাউন্সিল অব ইসলামিক আইডিওলজি। তাদের দিক থেকে মন্দির নির্মাণে কোনও আপত্তি না আসাকে ইতিবাচক হিসেবে দেখছে পাকিস্তানের সংখ্যালঘু সম্প্রদায়।

কাউন্সিলের এমন মনোভাবকে স্বাগত জানিয়েছেন পাকিস্তান পার্লামেন্টের হিন্দু ধর্মাবলম্বী একজন এমপি লাল মালহি। তবে একইসঙ্গে তিনি জানিয়েছেন, কাউন্সিল সরকারকে ব্যক্তিগত উপাসনালয় নির্মাণে সরাসরি সরকারি তহবিল ব্যয় না করারও সুপারিশ করেছে।

নতুন এ মন্দিরটি নির্মাণের কাজ আরও আগেই শুরু হয়েছিল। এতে ছয় লাখ ডলারের (৯ কোটি ৬১ লাখ পাকিস্তানি রুপী) তহবিল দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। তবে নির্মাণকাজের এক পর্যায়ে এ নিয়ে ধর্মীয় উত্তেজনার জেরে নির্মাণকাজ বন্ধ করে দেয় কর্তৃপক্ষ। শেষ পর্যন্ত বুধবার দেশটির সর্বোচ্চ ইসলামিক কাউন্সিল মন্দিরটি নির্মাণের পক্ষে মত দেয়।

আলেমদের আনুষ্ঠানিক মতামত পাওয়ায় সরকার এখন আনুষ্ঠানিকভাবে মন্দির নির্মাণের অনুমতি দেবে বলে আশাবাদী হয়েছেন দেশটির সংখ্যালঘুরা। ইসলামাবাদে ১০ লক্ষাধিক মানুষের বসবাস। এর মধ্যে প্রায় তিন হাজার হিন্দু ধর্মাবলম্বী। তবে তাদের জন্য সেখানে উল্লেখযোগ্য কোনও মন্দির নেই।

Author: Rijvi Ahmed

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *