৪০ বছরের পুরানো সিন্দুক নিয়ে শহুরে হইচই, খুলে যা পাওয়া গেল

ময়মনসিংহে গত কয়েক দিন ধরে ৪০ বছরের পুরোনো একটি সিন্দুক নিয়ে পুরো শহরে হৈচৈ পড়ে যায়। সিন্দুকটি ময়মনসিংহ নগরীর মহারাজা রোডের কেন্দ্রীয় সমবায় ব্যাংক লিমিটেডের। এ নিয়ে সাধারণ মানুষের মাঝে উৎসাহ বেড়ে যায়। প্রশাসনও জানতে চায় সিন্দুকে কী আছে?

সব জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে পুরনো এই সিন্দুক ভাঙা হয়। পরে পাওয়া গেল ৪০ বছরের ঋণ আদায়ের ঘুনে ধরা কাগজ।

ময়মনসিংহ সদরের ইউএনও সাইফুল ইসলাম, ময়মনসিংহ কেন্দ্রীয় সমবায় ব্যাংকের চেয়ারম্যান ও জেলা পরিষদের সদস্য খায়রুল বাশার, কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি ফিরোজ তালুকদার, পরিদর্শক দুলাল আকন্দ, উজ্জ্বল সরকার ও প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তরের সাবিনা ইয়াসমিনের উপস্থিতিতে বৃহস্পতিবার বিকালে সিন্দুকটি ভাঙা হয়।

পরে দেখা যায়, এর ভেতর ১৯৮২ সনের টাকা আদায়ের কিছু পুরোনো কাগজ। কাগজগুলোর অনেকাংশ ঘুনে খেয়ে নষ্ট করে ফেলেছে।

এই সিন্দুকটি ভাঙার সময় স্থানীয় লোকের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো। ১৯৬০ সালে ময়মনসিংহ কেন্দ্রীয় সমবায় ব্যাংকটি প্রতিষ্ঠিত হলেও এর কার্যক্রম শুরু হয় ১৯৬৭ সালে। সম্প্রতি গণপূর্ত বিভাগ এটিকে পরিত্যক্ত ঘোষণা করলে এখানে নতুন ভবন তৈরি হয়। কেন্দ্রীয় সমবায় ব্যাংকের এই সিন্দুক নিয়ে শহরময় যে হৈ চৈ পড়েছিল, সিন্দুক ভাঙার পর তার অবসান ঘটল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *