অবশেষে নুরের দুঃখ প্রকাশ

ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুরের বি’রুদ্ধে আরও একটি মা’মলা করেছেন ঢাবির সেই ছাত্রী। বুধবার (১৪ অক্টোবর) ঢাকার সাইবার ট্রাইব্যুনালে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে তিনি এই মা’মলা করেন। শুনানি শেষে ঢাকা সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক আসসামছ জগলুল হোসেন মা’মলাটি আমলে নেন এবং ওই ছাত্রীর বক্তব্য রেকর্ড করেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে নুর আজ গণমাধ্যমকে বলেন, ‘ধ’র্ষ’ণ মা’মলায় ওই ছাত্রী আমাকে একেবারেই ভিত্তিহীনভাবে জড়িয়েছেন। এটি একটি রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত মা’মলা।’ ওই ঢাবি ছাত্রীকে নিয়ে সম্প্রতি করা তার মন্তব্য নিয়ে নুর বলেন, ‘সম্প্রতি আমার সংগঠনের পাঁ’চজনকে তুলে নিয়ে যায় ডিবি পুলিশ, কিন্তু স্বীকার করেনি।

এতে আমি মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছিলাম। তাই লাইভে এসে ক্ষোভ প্রকাশ করেছি, কিন্তু ওই ছাত্রীর চরিত্র নিয়ে প্রশ্ন তুলতে চাইনি।’ নুরের বি’রুদ্ধে ঢাবি ছাত্রীর চরিত্রহননের লক্ষ্যে অশোভন ভাষা ব্যবহারের যে অ’ভিযো’গ আনা হয়েছে সে বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আমি বলতে চেয়েছি তিনি “দুশ্চরিত্রাহীন”, তিনি “দুশ্চরিত্র” নয়।’

নুর বলেন, ‘তিনি (ছাত্রী) প্রকৃতপক্ষে ধ’র্ষ’ণের শি’কার হয়ে থাকলে, তার বিচার চাইতে পারেন। এর বিচার আমরাও চাই। আমরা তার পাশে আছি।’ তিনি বলেন, ‘আমার কথায় তিনি যদি দুঃখ পেয়ে থাকেন, তাহলে আমিও তার কাছে দুঃখপ্রকাশ করছি।’

তিনি আরও বলেন, ‘তবে ধ’র্ষ’ণের সহযোগী, অপহরণকারী উল্লেখ করে তিনি আমাদের বি’রুদ্ধে একের পর এক মা’মলা করে যাচ্ছেন, এতে আমরাও তো সামাজিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন হচ্ছি, তিনি নিজেই তো আমাদের ‘দুশ্চরিত্র’ হিসেবে উপস্থাপন করছেন। এগুলো কি অপরাধ নয়?’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *