তৎক্ষণাৎ লঞ্চটি পাশের চরে ভিড়িয়ে দিলে অল্পের জন্য প্রা’ণে বাঁচলেন ২০০ যাত্রী

ড্রেজিংয়ের সঙ্গে ধাক্কা লেগে তলা ফেটে যাওয়া এমভি শাহ পরানের যাত্রীদের নিরাপদে উ’দ্ধার করা হয়েছে। রবিবার (১১ অক্টোবর) শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটে লৌহ’জং টার্নিংয়ে কাছে এ ঘটনার পর তৎক্ষণাৎ লঞ্চটি পাশের চরে ভিড়িয়ে দিলে যাত্রীরা প্রা’ণে বেঁচে যান। পরে অন্য লঞ্চ এসে তাদের শিমুলিয়া পৌঁছে দেয়। লঞ্চটির তলা দিয়ে পানি প্রবেশ আপাতত বন্ধ করা হয়েছে।

এ বিষয়ে বিআইডব্লিউটিএ’র সহকারী পরিচালক শাহাদাত হোসেন জানান, সকাল ১০টার দিকে মাঝিকান্দি থেকে লঞ্চটি শিমুলিয়ার উদ্দেশ্যে রওনা হয়। পৌনে ১১টার দিকে পদ্মা সেতু অ’তিক্রম করে বড় পদ্মায় প্রবেশের মুখে ড্রেজার বংশীর সাথে ধাক্কা লেগে লঞ্চটি তলা দিয়ে পানি প্রবেশ করতে থাকে।

লঞ্চ
এর আগে গত ২৭ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় এই দুর্ঘ’টনাস্থলের পশ্চিম দিকে কাঁঠালবাড়ি যাওয়ার পথে এমভি শ্রেষ্ঠ-২ একই ধরনের দুর্ঘ’টনায় পড়ে। তখনও ২০০ যাত্রীর জীবন ঝুঁ’কিতে পড়ে। তবে শেষ পর্যন্ত তাদের নিরাপদে উ’দ্ধার করা হয়।

তৎক্ষণাৎ লঞ্চটি পাশের চরে ভিড়িয়ে দিলে অল্পের জন্য প্রা’ণে বাঁচলেন ২০০ যাত্রী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *