অসহায় বদ্ধের কষ্টের কথা শুনে দোকান উপহার দিলেন নেতা

ঝালকাঠিতে অসহায় বৃদ্ধের কষ্টে জীবন-যাপনের কথা শুনে মালামালসহ সবজির ভ্রাম্যমাণ দোকান উপহার দিয়েছেন শিশু সংগঠক ও যুবলীগ নেতা ছবির হোসেন।

বুধবার (০৭ অক্টোবর) শহরের চাঁদকাঠি বাজার এলাকায় বৃদ্ধের কাছে দোকানের চাবি হস্তান্তর করা হয়। সবজি দোকানটি পেয়ে ছবির হোসেনের কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন ৭০ বছরের অসহায় বৃদ্ধ মোবাক্ষের মীর। ভ্যানগাড়িতে সবজি বিক্রি করে এখন থেকে চলবে তার সংসার।

স্থানীয় সূত্র জানায়, ঝালকাঠির বাড়ইগাতি গ্রামের বৃদ্ধ মোবাক্ষের মীর দুই মেয়ে ও এক ছেলেকে বিয়ে দিয়ে স্ত্রীকে নিয়ে সীমাহীন কষ্টে দিন কাটান।

মাঝেমধ্যে এক মেয়ের জামাতা তাকে আর্থিক সাহায্য দিতেন। কিন্তু করোনাকালে খুলনার জুটমিলের চাকরি চলে যাওয়ায় পর সেই মেয়ের জামাতাও উঠেছেন শ্বশুরবাড়িতে।

বৃদ্ধের অপর দুই ছেলে-মেয়েরও আর্থিক অবস্থা খারাপ হওয়ায় তাদের কাছ থেকে কোনো সাহায্য জোটে না। ফলে চরম অভাব-অনাটনে দিশেহারা হয়ে পড়ে পরিবারটি। তাদের দুঃখের কথা শুনে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেন ঝালকাঠির শিশু সংগঠক পৌর যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক ছবির হোসেন।

শ্বশুর ও জামাতার জন্য তিনি সবজি ব্যবসার ব্যবস্থা করে দেন। সাজানো ভ্যানে করে এখন থেকে সবজি বিক্রি করে চলবে অসহায় পরিবারটির জীবিকা। ৫০ হাজার টাকা খরচ করে একটি সবজিবোঝাই ভ্যান কিনে দিয়েছেন ছবির হোসেন। কর্মসংস্থানের নতুন ঠিকানা পেয়ে অসহায় বৃদ্ধ অনেক খুশি হয়েছেন।

যুবলীগ নেতা ছবির হোসেন বলেন, এক মাসের চাল-ডাল কিনে দিলে অভাব দূর হতো না ওই বৃদ্ধের। তাই স্থায়ীভাবে

অসহায় পরিবারটির অভাব দূর করার জন্য সবজি ব্যবসার ব্যবস্থা করে দিয়েছি। সমাজের বিত্তবানদের এমন কাজে এগিয়ে আসতে হবে।ঝালকাঠির এই যুবলীগ নেতা এর আগেও গৃহহীন পরিবারকে ঘর তুলে দেয়া, ফুটপাতের নারী মুচিদের দোকান,

জুতার ব্যবসার ব্যবস্থা করা ও করোনায় কর্মহীন হয়ে ঝালকাঠির শহরের অসংখ্য পরিবারকে সহযোগিতার করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *