ভাত রান্না ছাড়াও আরও ৮ ভাবে চালকে ব্যবহার করতে পারেন, যা আপনি কখনই জা’নতেন না!

চাল দিয়ে নানা পদের রান্না কে না জা’নেন৷ কিন্তু হেঁশেলের বাইরেও চাল ব্যবহার করা যায় একাধিক কাজে৷ বাড়িতে সব থেকে সহজলভ্য উপাদানগু’লির মধ্যে চাল অন্যতম৷ তাই চালের নানারকম উপকারিতা জে’নে রাখা দরকার আপনারও৷ অনেক মুশকিল আসানে চাল হতে পারে আপনার সহায়ক৷ এখানে চাল স’ম্পর্কে কিছু অজা’না তথ্য দেওয়া হল৷

১. গ্যাজেটের জল শু’ষে নিতে- ফোন বা ক্যামেরা হাত থেকে জলে পড়ে গেলে আপনার মাথায় হাত৷ জল ঢুকলে এইসব শখের জিনিসের বারোটা বেজে যেতে পারে৷ ব্যাটারি খা’রাপ হতে পারে৷ তার ফলে ফোন বা ক্যামেরা অচ’লও হতে পারে৷ এক্ষেত্রে চাল হতে পারে আপনার ফোন বা ক্যামেরাকে পুনরুজ্জীবিত করার চাবিকাঠি৷ ফোন বা ক্যামেরা খু’লে একটি চাল ভরতি ড্রামে ঢুকিয়ে রাখু’ন৷ এর ফলে আপনার গ্যাজেটের ভি’তরের জল শুষে নেবে চাল৷ তাতে আপনার গ্যাজেটটির স’মস্যার সমাধান হতে পারে৷

২. ঠাণ্ডা বা উ’ষ্ণ সেক- ব্যাথার উপশমে গরম বা ঠাণ্ডা সেক খুবই উপকারী৷ সেক্ষেত্রে আপনি হট বা কোল্ড ব্যাগের বদলে ব্যবহার ক’রতে পারেন একটি কাপড়ে একমুঠো চাল ভরে৷ একটি কাপড়ের টুকরোর মধ্যে একমুঠো চাল নিয়ে তা ফ্রিজে ঠাণ্ডা করুন কোল্ড সেকের জন্য৷ আর উ’ষ্ণ সেকের জন্য ব্যবহার করুন একটি গরম তাওয়ায় ওই চালের পুটলিকে৷ শুধু কাপড় দিয়ে সেক দিলে তা বেশিক্ষন ঠাণ্ডা বা গরম থাকে না৷ সেক্ষেত্রে চাল অনেক বেশি সময়ে ঠাণ্ডা বা গরম ধ’রে রাখতে পারে৷

৩. লবণকে গলে যাওয়া থেকে র’ক্ষা ক’রতে- বর্ষার সময় লবণের বয়ামের লবণ গলে যায় এবং দলা পাকিয়ে যায়। এই স’মস্যা সমাধানের জন্যও ব্যবহার ক’রতে পারেন চাল৷ লবণের বয়ামে খানিকটা চাল রেখে দিন। চাল লবণের বয়ামের বাড়তি আর্দ্রতা শুষে নেবে। লবণ গলবেও না এবং দলাও পাকাবে না।

৪. তেলের তাপমাত্রা পরীক্ষা ক’রতে- রান্নার সময় তেল সঠিক পরিমাণে গরম না হতেই খাবার তেলে দিয়ে দিলে তেল ভি’তরে ঢুকে খাবারটাই ন’ষ্ট হয়ে যায়। কাঁচা তেলের একটি গন্ধও হয়৷ যা অনেকেই পছন্দ করেন না৷ তাই তেলে খাবার ছাড়ার আগে দু’টি বা তিনটি চাল তেলে দিয়ে দিন। যদি চাল তেলে ভেসে ওঠে তাহলে বুঝবেন তেল সঠিক গরম হয়েছে৷

৫. ব্লেন্ডারের ব্লেড ধা’রালো ক’রতে- ব্লেন্ডার দীর্ঘদিন ব্যবহারের ফলে এর ব্লেডের ধার কমে যেতে পারে। ব্লেডগু’লিকে পুনরায় ধা’রালো ক’রতে এক কাপ চাল ব্লেন্ডারে দিয়ে ব্লেন্ড করুন। এতে আগের মতোই ধাঁর হয়ে যাবে ব্লেন্ডারের ব্লেডের।

৬. সরু বোতল জাতীয় জিনিস প’রিষ্কার ক’রতে- কিছু বোতল থাকে যার তলানি পর্যন্ত হাত ঢোকে না৷ ফলে তা ভালো করে প’রিষ্কার করাও সম্ভব হয় না। এই ক্ষেত্রে, কিছুটা চাল ও জল ওই বোতলে দিয়ে ভালো করে ঝাঁকান। এতে বোতলের নিচের অংশ প’রিষ্কার হয়ে যাবে।

৭. দ্রুত ফল পাকাতে- দ্রুত কোনও ফল পাকাতে চান? বিশেষ করে আম, কলা ধ’রণের ফলগু’লি চাল ভরতি পাত্রে ঢেকে রাখু’ন। এতে বেশ দ্রুত ফল পেকে যাবে।

৮. ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃ’দ্ধি ক’রতে- ভাত রান্নার সময় মাড় তৈরি হয়৷ এই ভাতের মাড় উ’ষ্ণ গরম থাকতে মুখের ত্বকে মেসেজ করে নিন৷ এরপর একটি পাতলা নরম কাপড় ভিজিয়ে ত্বক মুছে ফেলুন। আপনি ভাতের মাড়টি তিন দিন পর্যন্ত ফ্রিজে রেখেও সংরক্ষণ ক’রতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *