১৮৪ ব’য়’সেও মৃ’ত্যু হয় না বলে মৃ’ত্যুর আশা ছেড়েই দি’য়ে’ছেন এই বৃদ্ধ

১৮৪ বয়সেও মৃ’ত্যু হয় না বলে মৃ’ত্যুর আশা ছেড়েই দিয়েছেন এই বৃদ্ধ – ১৮৪ বয়সেও মৃ’ত্যু হয়নি এই বৃদ্ধের, ছেড়ে দিয়েছেন মৃত্যুর আশা রত্যেক মানুষকেই মৃ’ত্যু স্বাদ গ্রহণ করতে হবে। এই কথাটা অমোঘ সত্য। তবে সুন্দর এ ভুবনে কে-ই বা মরতে চায়।

কিন্তু অবাক হলেও সত্য, এক বৃদ্ধ ১৮৪ বছর বয়সেও মা’রা যাননি। তিনি মৃ’ত্যুর আশা ছেড়েও দিয়েছেন!এ বৃদ্ধের নাম মহাশতা মুরাসি। ১৮৩৫ সালে ভারতের বেঙ্গালুরুতে জন্ম। তার সন্তানরা, এমনকি নাতি-নাতনিরাও বেঁচে নেই। কিন্তু মৃ’ত্যু এখন পর্যন্ত তাকে গ্রাস করতে পারেনি। বৃদ্ধ

বলেন, যম বোধ হয় আমাকে নিতে ভুলে গেছে। ওই বৃদ্ধ এক সংবাদমাধ্যমকে দুঃখ করে বলেন, আমার চোখের সামনে আমার বহু নাতি-নাতনিদের মরে যেতে দেখেছি। কিন্তু আমাকে আজ পর্যন্ত মৃ’ত্যু গ্রাস করতে পারেনি।বর্তমানে এই বৃদ্ধ মৃ’ত্যুর আশা ছেড়ে দিয়েছেন! তবে শেষ

জীবনে তার ইচ্ছে, বিশ্বের সবচেয়ে বয়স্ক ব্যক্তি হিসেবে আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পাওয়া। রেকর্ড বলছে, এর আগে গিনিস ওয়ার্ল্ড বুকে প্রবীণ ব্যক্তি হিসেবে ফ্রান্সের জিয়ানে লুইস কালমেন্ট নাম লিখিয়েছেন। ১২২ বছর বেঁচে এ রেকর্ড গড়েন তিনি। ১৮৭৫ সালে জন্ম নেয়া জিয়ানে লুইস

কালমেন্ট ১৯৯৭ সালে মারা যান। এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মহাশতা মুরাসির জন্ম ১৮৩৫ সালের ৬ই জানুয়ারি। এই হিসাব অনুযায়ী তার বয়স ১৮৪। তবে তার জন্মের কোনো প্রমাণপত্র পাওয়া যায়নি।

এই ব্যক্তি শেষবার ১৯৭১ সালে চিকিৎসকের কাছে গিয়েছিলেন। তিনিও মা’রা গেছেন। বৃদ্ধ বয়সে তার শুধু একটাই চাওয়া- বিশ্বের সবচেয়ে বৃদ্ধ ব্যক্তির স্বীকৃতি পাওয়া

Author: Rijvi Ahmed

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *