ফরিদপুরে ২ বৃদ্ধের মৃত্যু, ১০০ বাড়ি লকডাউন

ফরিদপুরের ভাঙ্গায় মৃত্যুবরণকারী এক বৃদ্ধের নমুনা সংগ্রহ করে করোনা পরীক্ষার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। সোমবার (৬ এপ্রিল) ভোররাতে সে মৃত্যুবরণ করে। মৃত্যুবরণকারী ওই ব্যক্তির বয়স ৭০ বছর। তিনি ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার চুমুরদি ইউনিয়নের রায়পাড়া গ্রামের আইজদ্দিন মাতুব্বরের ছেলে। এদিকে, সোমবার (৬ এপ্রিল) সকাল ৯টার দিকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে করোনা উপসর্গ নিয়ে ভর্তি হওয়া এক ব্যক্তি মারা যান। ওই ব্যক্তির বয়সও ৭০ বছর। তার বাড়ি মধুখালী উপজেলার জাহাপুর ইউনিয়নের চর মুরারদিয়া গ্রামে।

ভাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কর্মকর্তা মোহসিন উদ্দিন জানান, তিনি লিভারের সমস্যায় ভুগছিলেন। তবে তার জ্বর কিংবা শ্বাসকষ্ট ছিলো কিনা সেটি পরিবারের লোকেরা নিশ্চিতভাবে বলতে পারেননি। তিনি জানান, খবর পেয়ে আমরা সেখানে যাই এবং করোনাভাইরাসে তার মৃত্যু হয়েছে কিনা সেটি নিশ্চিত হওয়ার জন্য মৃতের শরীরের নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় পাঠানোর ব্যবস্থা করেছি।

ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা. সাইফুর রহমান জানান, তিনি কিডনী রোগী ছিলেন। গত ৪ এপ্রিল তাকে ফমেক হাসপাতালে আনা হয়। এরপর জ্বর ও শ্বাসকষ্ট হলে রোববার তাকে করোনার রোগীদের জন্য তৈরি করা আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছিলো।

তিনি জানান, গতকাল রোববার তার শরীরে করোনা আছে কিনা যাচাইয়ের জন্য শরীরের বিভিন্ন নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকার আইসিডিআর-এ পাঠানো হয়। এখনো আমরা নিশ্চিত নই তিনি করোনা আক্রান্ত ছিলেন কিনা। তার মৃত্যুর পর জেলা পুলিশের নির্দেশনায় চর মুরারদিয়া গ্রামে তার বাড়ির আশেপাঁশে একশ’ বাড়ির অধিবাসীদের হোম কোয়ারেন্টাইনে নেয়া হয়েছে।

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *