করোনায় মৃ*ত্যুর আসল সংখ্যা কত

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসে প্রায় সাড়ে ৪ লাখ মানুষ মারা গেছে। করোনায় মৃত্যুর পরিসংখ্যান নিয়ে শুরু থেকেই দেশ বা সংস্থাভেদে পার্থক্য লক্ষ করা যাচ্ছে। তা ছাড়া করোনায় মৃত্যুর প্রকৃত তথ্য পাওয়া নিয়েও প্রশ্ন রয়েছে।যুক্তরাষ্ট্রের জনস হপকিন্স ইউনিভার্সিটির সবশেষ (১৮ জুন) তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বে করোনায় মোট মারা গেছে ৪ লাখ ৪৮ হাজার ৯৫৮ জন।পরিসংখ্যান নিয়ে কাজ করা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটার শুরু থেকেই বিশ্বের বিভিন্ন দেশের করোনাবিষয়ক হালনাগাদ তথ্য দিয়ে আসছে। তাদের সবশেষ তথ্য বলছে, বিশ্বে করোনায় মোট মারা গেছে ৪ লাখ ৫১ হাজার ৩৮৭ জন।বার্তা সংস্থা রয়টার্সও করোনার তথ্য সংরক্ষণ ও হালনাগাদ করে আসছে। রয়টার্সের তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বে করোনায় মারা গেছে ৪ লাখ ৪৭ হাজার ৯৮৫ জন।

দেখা যাচ্ছে, বিশ্বে যত সংস্থা করোনার হালনাগাদ তথ্য দিচ্ছে, তাদের কারও পরিসংখ্যান কারও সঙ্গে মিলছে না। কম–বেশি একটা ব্যবধান থাকছেই।করোনায় আক্রান্ত সবগুলো দেশ সব সময় মৃত্যুর সঠিক পরিসংখ্যান যে দিচ্ছে, তাও নয়। এই যেমন চীনের বিরুদ্ধে করোনায় মৃত্যুর প্রকৃত তথ্য প্রকাশ না করা অভিযোগ আছে।লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিলের করোনার তথ্য ধামাচাপা দেওয়ার অভিযোগ ইতিমধ্যে বিশ্বজুড়ে রাষ্ট্র হয়ে গেছে।করোনায় মৃত্যুর তথ্য গোপনের এমন সব ঘটনা আরও অনেক দেশেই ঘটছে। সেসব অভিযোগ গণমাধ্যমে আসছে।

এ তো গেল একটি দিক। আরও একটি দিক রয়েছে। অনেকে করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা যাচ্ছে। অনেকে ঘরে মারা যাচ্ছে। অনেকে জানতেই পারছে না, মৃত্যুটা কেন হলো। এসব ক্ষেত্রে পরীক্ষা না হলে এই মৃত্যুর পরিসংখ্যান করোনার সঙ্গে যুক্ত হচ্ছে না।ফলে বিশ্বজুড়ে করোনায় মৃত্যুর যে পরিসংখ্যান বিভিন্ন সূত্র থেকে পাওয়া যাচ্ছে, তা যে প্রকৃত সংখ্যা নয়, সেটা মোটামুটি নিশ্চিত।বিবিসি অনলাইনের প্রতিবেদনে জানানো হয়, করোনার তথ্যের যথার্থতা নির্ভর করে কত সংখ্যক মানুষের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে, এর ওপর। আর বিভিন্ন দেশের সরকার হাসপাতালের বাইরের মৃত্যুর তথ্য তাদের গণনায় অন্তর্ভুক্ত করছে কি না।তা ছাড়া বিশ্বজুড়ে করোনা মহামারির বিস্তার এমন ভয়াবহ পর্যায়ে গেছে যে, তার আক্রমণের পুঙ্খানুপুঙ্খ হিসাব রাখাটাও বেশ মুশকিল।

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *