ব্রেকিং নিউজঃ যেখানে ৭ হাজার টাকায় মিলছে করোনা নেগেটিভ সনদ

রাজধানীর প্রায় সবকটি করোনাভাইরাস পরীক্ষা কেন্দ্রে সক্রিয় হয়ে উঠেছে দালাল চক্র। যারা পাঁচ থেকে সাত হাজার টাকায় বিক্রি করছে করোনা নেগেটিভের ভুয়া সনদ। এরকম একটি চক্রের চার সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাব। এসময় তাদের কাছ থেকে ভুয়া সনদপত্র ও সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়।বিদেশযাত্রা কিংবা যে সব প্রতিষ্ঠানে চাকরিতে যোগদানের জন্য করোনা নেগেটিভ সনদপত্র দরকার সেসব লোকদের টার্গেট করে মুগদা জেনারেল হাসপাতাল কেন্দ্রিক তৎপরতা চালিয়ে আসছিল একটি চক্র।

হাসপাতালে স্যাম্পল দিতে আসা লোকজনের কাছে বিক্রি করা হয় ভুয়া সনদপত্র। যার জন্য নেয়া হতো ৫ থেকে ৭ হাজার টাকা।সাধারণ মানুষের এসব অভিযোগের পর গোপন তথ্যের ভিত্তিতে মুগদা হাসপাতালে অভিযানে যায় র‌্যাব। আটক করা হয় ৪ জনকে। লে. কর্নেল রকিবুল হাসান বলেন, বিভিন্ন সময়ে যারা মুগদা হাসপাতালে স্যাম্পল দিতে এসেছে তাদেরকে প্ররোচিত করে এখান থেকে ভুয়া সার্ফিকিকেট দেয়া হয়।

এখন পর্যন্ত কোন সরকারি লোকের থেকে কিছু জানতে পারিনি।র‌্যাবের দাবি,এখন পর্যন্ত চক্রটি ১৫০-২০০টি ভুয়া সনদ বিক্রি করেছে। রাজধানীজুড়ে যে কয়টি করোনা টেস্ট কেন্দ্র রয়েছে তার সবগুলোতে সক্রিয় চক্রটি।দেশের বাইরে জাপান,দ.কোরিয়া,মালয়েশিয়ার কিছু রিপোর্ট আমরা পেয়েছি। এখান থেকে ভুয়া রিপোর্ট নিয়ে গিয়ে তাদের সেখানে করোনা হয়েছে। ফলে দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট হয়েছে।এসব সনদপত্রে বিভিন্ন হাসপতালের নাম ব্যবহার করা হলেও এখন পর্যন্ত কোন হাসপাতালের সংশ্লিষ্টতা পাওয়া যায়নি বলে জানাায় র‌্যাব।

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *