যে কারনে লক্ষ্মীপুরের এমপি কুয়েতে গ্রেফতার

মানবপাচার ও অর্থপাচারের অভিযোগে লক্ষ্মীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য কাজী শহীদ ইসলাম পাপুলকে গ্রেফতার করেছে কুয়েত পুলিশ। সে দেশে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এই তথ্য নিশ্চিত করেন। এ বিষয়ে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে দেশটির আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

গেল ফেব্রুয়ারি মাসে সংসদ সদস্য পাপুলের ছবি দিয়ে কুয়েতের আল কাবাস পত্রিকায় বাংলাদেশের একজন সংসদ সদস্যকে মানবপাচারের অভিযোগে খোঁজা হচ্ছে- এমন একটি সংবাদ প্রচার হয়। সংবাদে মানি লন্ডারিংসহ ওই সংসদ সদস্যের কুয়েতি কোম্পানির বিরুদ্ধে বাংলাদেশ থেকে প্রায় ২০ হাজার মানুষকে চাকরি দেয়ার কথা বলে কুয়েতে নিয়ে আসা ও বিনিময়ে ৫ কোটি কুয়েতি দিনার লেনদেনের অভিযোগ আনা হয়। এছাড়া দেশটির ইংরেজী দৈনিক কুয়েতি টাইমসও এ নিয়ে সংবাদ প্রচার হয়।

এরপরই তদন্ত শুরু করে কুয়েতের আইনশৃঙ্খলাবাহিনী। আর রোববার (৭ জুন) দেশটির আইনশৃঙ্খলাবাহিনীর হাতে লক্ষ্মীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য কাজী শহীদ ইসলাম পাপলুর গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেন, দেশটিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এস এম আবুল কালাম।

টেলিফোনে সময় সংবাদকে তিনি জানান, শনিবার রাতে কুয়েতের ক্রিমিনাল ইনভেস্টিগেশন ডিপাটমেন্ট, সিআইডি পাপুলকে আটক করে। তবে এখন পযন্ত পাপুলের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে কিনা বিষয়টি জানা যায় নি বলে জানান রাষ্ট্রদূত।

এর আগে ফেব্রুয়ারি মাসেই পাপুলের বিরুদ্ধে অর্থ পাচার ও অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে তার বিরুদ্ধে অনুসন্ধান শুরু করে দুনীতি দমস কমিশন। যেখানে তার বিরুদ্ধে দুনীতির মাধ্যমে অথপাচার ও শত কোটি টাকার অবৈধ সম্পদ অজনের অভিযোগ আনা হয়।

শহিদ ইসলাম পাপলু কুয়েত মারাফি কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও বাংলাদেশ এনআরবি কর্মাশিয়াল ব্যাংকের ভাইস চেয়ারম্যান।

Author: Online Editor

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *