সেই বৃদ্ধের বাড়িতে বাজার নিয়ে গেলেন ইউএনও

গাড়ির নিচে ফেলে মেরে ফেলার চেষ্টা করা বৃদ্ধ মো. শাহাবুদ্দিনের (৮০) পাশে দাঁড়িয়েছেন ফুলপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শীতেষ চন্দ্র সরকার।

মঙ্গলবার (৮ ডিসেম্বর) ফুলপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শীতেষ চন্দ্র সরকার উপহার সামগ্রী নিয়ে উপস্থিত হন বৃদ্ধ সাহাবুদ্দিনের বাড়িতে। উপহার সামগ্রীর মাঝে রয়েছে- চাল, ডাল, তেল, নুডলস, চিড়া, চিনি, লবণসহ প্রয়োজনীয় খাবার সামগ্রী রয়েছে।

এ সময় বৃদ্ধকে দ্রুত একটি ঘর নির্মাণ করে দেয়ার ঘোষণা দেন তিনি। এছাড়া পরিবারের সদস্যদের প্রতি বৃদ্ধ বাবার যত্ন নিতে নির্দেশও দেন ইউএনও।

ফুলপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শীতেষ চন্দ্র সরকার বলেন, বৃদ্ধের চলার মতো সব ব্যবস্থায় করা হবে। ওনার বাড়ি করার মতো জায়গা আছে কিনা, সে বিষয়েও খোঁজ নেয়া হচ্ছে। যদি না থাকে তাহলে ঘর করার ব্যবস্থাও করা হবে।

বৃদ্ধের ছেলের বউ নাছিমা খাতুন বলেন, অভাবের জন্য এ কাজ করছি। যে সহায়তা পেয়েছি তাতে অন্তত কয়েক মাসের জন্য কোনো অসুবিধা হবে না। যতদিন তিনি (শ্বশুর) বেঁচে থাকবেন ততদিন যত্ন করবেন।

প্রসঙ্গত সোমবার (৭ ডিসেম্বর) ভোর রাতে বৃদ্ধ মো. শাহাবুদ্দিনকে তার ছেলে রফিক ও তার স্ত্রী মেরে ফেলার জন্য ঢাকা-শেরপুর মহাসড়কের সাহাপুর চেরাগআলী মিল সংলগ্ন স্থানে নিয়ে আসে।

এ সময় বৃদ্ধের চিৎকারে আশপাশের লোকজন জড়ো হলে রাস্তার মাঝখানে ফেলে রেখে ছেলে ও তার বউ পালিয়ে যায়।

পরে মৌ আক্তার পলি নামে এক পথচারী ফোন করে ৯৯৯ নম্বরে জানালে ফুলপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে থেকে বৃদ্ধকে উদ্ধার করে বাড়িতে পাঠায়।

পরে ওই দিনই ফুলপুর থানার ওসি ইমারত হোসেন গাজী বৃদ্ধের বাড়িতে গিয়ে খোঁজ নেন ও আর্থিক সহায়তা করেন।

Author: Rijvi Ahmed

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *