স্ত্রীর সঙ্গে দীর্ঘ সময় শারীরিক সম্পর্ক করতে গিয়ে ইনজুরিতে ওয়ার্নার

স্ত্রীর সাথে দীর্ঘ সময় ধরে শারীরিক সম্পর্কের কারণে কুচকির ইনজুরিতে পড়েছেন অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটসম্যান ডেভিড ওয়ার্নার। এমন মন্তব্য করেছেন খোদ তার স্ত্রী ক্যান্ডিস ওয়ার্নার। খবর ডেইলি মেইল’র।

রোববার সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে ভারতের বিরুদ্ধে ম্যাচ চলাকালীন সময়ে ইনজুরির কারণে মাঠ ছাড়েন তিনি। এরপরই মঙ্গলবার একটি রেডিও শোতে স্বামীর ইনজুরির জন্য নিজেকেও দায়ী করেন তিনি।

ক্যান্ডিস বলেন, দীর্ঘ চারমাস পর আমরা একে অপরকে কাছে পেয়ে আর সামলাতে পারিনি। তাই খেলতে নামার আগে আমরা দীর্ঘ সময় ধরে শারীরিক সম্পর্কে মিলিত হই।

উল্লেখ্য, আইপিএল খেলাসহ করোনা সতর্কতায় কোয়ারেন্টাইনকালীন সময় মিলিয়ে প্রায় চারমাস পর পরিবারের সাথে দেখা করার সুযোগ পান এই অস্ট্রেলিয়ান তারকা।

সম্প্রতি ডেভিড ওয়ার্নার ও ক্যান্ডিস ওয়ার্নারের বিয়ের ৫ বছর পূর্ণ হয়েছে। আইপিএল খেলতে ব্যস্ত থাকায় সেই সময় বিবাহ বার্ষিকী সেলিব্রেট করতে পারেননি তারা।

এই সবকিছু নিয়েই অস্ট্রেলিয়ার একটি বিখ্যাত টিভি শো-তে আড্ডায় যোগ দিয়েছিলেন ক্যান্ডিস ওয়ার্নার। সেখানেই নিজেদের দাম্পত্য জীবন ও যৌন জীবন নিয়েও প্রশ্নের সম্মুখীন হতে হয় ওয়ার্নার পত্নীকে।

সঞ্চালক জিজ্ঞাসা করেন, ডেভিড ক্রিকেটার ম্যাচের আগে যৌনতায় লিপ্ত হন কিনা? কারধ অনেক স্পোর্টস ম্যানরাই ম্যাচের আগের দিন চোট আঘাত থেকে বাচতে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন থেকে বিরত থাকেন।

সঞ্চালকের এই বাউন্সারের জবাব বে সাবলীল ভাবেই দিয়েছেন তারকা ক্রিকেটারের পত্নী। উত্তরে ক্যান্ডিস ওয়ার্নার বলেন, ‘এটা পুরোটাই নির্ভর করে সংশ্লিষ্ট ক্রিকেটারের ওপর। সবাই অবশ্য এটাই করতে চায়।’

এরপর আরও একটি প্রশ্নের বাউন্সার সঞ্চালকের তরফ থেকে ধেয়ে আসে ক্যান্ডিস ওয়ার্বারের দিকে। ম্যাচের আগের দিন কোনও ঘনিষ্ঠ মুহূর্ত তৈরি হলে ওয়ার্নার নিজেকে সংযত রাখতে পারেন কিনা।

এই প্রশ্নের উত্তরে একটু ঘুরিয়ে ক্যান্ডিস জানান ‘ওয়ার্নার খুবই ভালো। ভালোবাসার মাধ্যমেই আমরা আরো কাছাকাছি এসেছি।আমরা একে অন্যের যত্ন নি। প্রতিটি সম্পর্ক বিনিময় প্রথার মতো।’ ওয়ার্নারের স্ত্রীর এমন বুদ্ধিদীপ্ত উত্তরের পর আর তেমন কিছুই করার ছিল না সঞ্চালকের।

Author: Rijvi Ahmed

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *